অনলাইনে একদিনেই ১৬২ কোটি টাকার কোরবানির পশু বিক্রি

Abu Khalid

০৯ জুলাই ২০২১, ০৫:৪১ এএম


অনলাইনে একদিনেই ১৬২ কোটি টাকার কোরবানির পশু বিক্রি

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে জমে উঠেছে অনলাইনে কোরবানির পশু বেচাকেনা। একদিনেই ২০ হাজার ৫৩৯টি কোরবানির পশু ১৬১ কোটি ৮৫ লাখ ৪৫ হাজার ৭১০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রয় কার্যক্রম অগ্রগতির প্রতিবেদন বিশ্লেষণে এ তথ্য উঠে এসেছে।

অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহে মোট ৪৬ হাজার ৮৪৭টি কোরবানিযোগ্য পশু ৩৬৭ কোটি ৬০ লাখ ২৩ হাজার ২৯৮ টাকায় বিক্রি হয়েছে। এ হিসাবে দৈনিক ছয় হাজারের বেশি পশু অনলাইন প্লাটফর্মে বিক্রি হয়েছে।

প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের সম্প্রসারণ শাখা সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) একদিনেই ২০ হাজার ৫৩৯টি পশু ১৬১ কোটি ৮৫ লাখ ৪৫ হাজার ৭১০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। আর ১৭ হাজার ৩২২টি গরু-মহিষ এবং তিন হাজার ২১৭টি ছাগল-ভেড়া বিক্রি হয়।আর এক লাখ ২৯ হাজার ১৬১টি কোরবানির পশুর তথ্য অনলাইনে আপলোড করা হয়। এরমধ্যে গরু ও মহিষের তথ্য এক লাখ ৯ হাজার ৭৭১টি এবং ১৯ হাজার ৩৯০টি ছাগল ও ভেড়া। 

প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের সম্প্রসারণ শাখার পরিচালক ডা. দেবাশীষ দাশ ঢাকা পোস্টকে বলেন, গত ৩ জুলাই থেকে ডিজিটাল প্লাটফর্ম অনলাইনের মাধ্যমে কোরবানিযোগ্য পশু বিক্রির তথ্য সংগ্রহ করছে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর। বৃহস্পতিবার সবেচেয়ে বেশি কোরবানির পশু বিক্রি হয়েছে।

তিনি জানান, অনলাইনে ৮ বিভাগে এখন পর্যন্ত মোট বাজারের সংখ্যা ৯২৩টি। এরমধ্যে ১৩টি প্লাটফর্মে ৯১০টি সামাজিক মাধ্যম ও সরকারি উদ্যোগে আছে ৫৩০টি বাজার। এসব বাজারে এখন পর্যন্ত (৩ জুলাই হতে ৮ জুলাই) দুই লাখ ৬৯ হাজার ৫৩৯টি কোরবানির পশুর তথ্য আপলোড করা হয়েছে।

এর মধ্যে গরু ও মহিষের সংখ্যা দুই লাখ ৩৮ হাজার ২২১টি। আর ছাগল ও ভেড়া রয়েছে ৩১ হাজার ৪৪২টি। এরমধ্যে মোট ৪৬ হাজার ৮৪৭টি পশু ৩৬৭ কোটি ৬০ লাখ ২৩ হাজার ২৯৮ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

সার্বিক বিষয়ে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. শেখ আজিজুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, দেশের খামারিদের সঙ্গে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা সমন্বয় করে এসব তথ্য সংগ্রহ করছে। উপজেলা থেকে জেলা, জেলা থেকে বিভাগ ও বিভাগ থেকে প্রধান কার্যালয় এভাবে সমন্বয় করে তথ্যগুলো সংগ্রহ করা হচ্ছে। আশা করছি দিন যত যাবে অনলাইনে পশু বিক্রির পরিমাণ ততই বাড়বে।

তিনি বলেন, করোনার কারণে এবার শুরু থেকেই সরকারের পক্ষ থেকে অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রিতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর কাজ করে যাচ্ছে। আমরা খামারিদের বলছি, অনলাইনে পশু বিক্রিতে যেকোনো সমস্যা হলে স্থানীয় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাকে জানাতে। খামারিদের পাশে থেকে তাদের পশু বিক্রিতে সব ধরনের সহযোগিতা করছে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর।

কোন বিভাগে কত বিক্রি

সবচেয়ে বেশি ২৮ হাজার ২৪৮টি গরু-মহিষ ও দুই হাজার ৬০১টি ছাগল-ভেড়া বিক্রি হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগে। যার বাজার মূল্য ২৩৯ কোটি ৭৪ লাখ ৭৫ হাজার ২০০ টাকা।

এরপরের স্থানে রয়েছে ঢাকা বিভাগ। এখানে সাত হাজার ৪৬৯টি গরু-মহিষ ও ৮০৪টি ছাগল-ভেড়া বিক্রি হয়েছে ৭২ কোটি ৫৩ লাখ ৩ হাজার ২৪৭ টাকায়।

এছাড়াও রাজশাহী বিভাগে দুই হাজার ৬০১টি গরু-মহিষ ও এক হাজার ৫৩৭টি ছাগল-ভেড়া ২৩ কোটি ৭২ লাখ ১৩ হাজার ৪০৮ টাকায় বিক্রি হয়েছে। খুলনা বিভাগে ৫৭৯টি গরু-মহিষ ও ২২৭টি ছাগল-ভেড়া ১০ কোটি ৭৫ লাখ ২৩ হাজার ৭০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

আর বরিশাল বিভাগে ৫৯৮টি গরু-মহিষ ও ৭৬টি ছাগল-ভেড়া চার কোটি ৯৩ লাখ ২৬ হাজার টাকায় এবং সিলেট বিভাগে ৪০১টি গরু-মহিষ ও ২৮টি ছাগল-ভেড়া দুই কোটি ৮০ লাখ ৪০ হাজার ১৯৩ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

রংপুর বিভাগে এক হাজার ৮৯৫টি গরু-মহিষ ও ১৮০টি ছাগল-ভেড়া ১২ কোটি ৩০ লাখ ৭৩ হাজার ৫০ টাকায় এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৯৬টি গরু-মহিষ ৮০ লাখ ৬৮ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

একে/ওএফ

Link copied