S M Nazer Hossain

এস এম নাজের হোসাইন

ভাইস প্রেসিডেন্ট, কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)

সিলেটে বন্যা : দুর্যোগেও লাভ খোঁজে যারা

বন্যা, বিশ্ববাজার ও ডলারের দাম বেড়ে যাওয়া—এমন সব রকমারি ছুতোয় একের পর এক বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম। কেউ পণ্য কিনছেন আগের চেয়ে কম....

আসুন মুড়ি খাই!

বাজেটে ব্যক্তি শ্রেণির করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ানো হয়নি। কমানো হয়েছে রেয়াতযোগ্য বিনিয়োগের সীমা। দুর্দিনের ভরসায় ও আয়কর কিছু ছাড় পেতে মধ্যবিত্ত সঞ্চয় করে থাকে...

খাদ্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্য : দিশেহারা প্রান্তিক মানুষ

মূল্যস্ফীতির চাপ যেমন সামলানো যাচ্ছে না, তেমনি নিত্যপণ্যের দামেও লাগাম টানা যাচ্ছে না।

ভোজ্যতেল : পকেট কাটার উৎসব বন্ধ হবে কবে?

গুটিকয়েক অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজির কারণে সাধারণ মানুষসহ সবস্তরের মানুষের জীবন ও জীবিকা হুমকি....

অতি মুনাফা ও প্রতারণার শিকার ভোক্তারা : আইন মানার তোয়াক্কা নেই

অনেকে মনে করেন, রমজানে একমাস ব্যবসা করব ১১ মাস বসে থাকব। যার কারণে...

চড়া নিত্যপণ্যের বাজার : সরকার কেন নির্বিকার?

নিত্যণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মূল কাজ হলো, নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালন করা। কিন্তু তারা দায়িত্ব পালনের চেয়ে ব্যবসায়ীদের পক্ষাবলম্বন করেন...

ফ্যামিলি কার্ড, ন্যায্যমূল্যের দোকানই কি বিকল্প উপায়?

গুটিকয়েক অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো শাস্তি বা তিরস্কারমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয় না। তখন তাদের দেখাদেখি অন্য ব্যবসায়ীরাও মজুতদারি...

রোজার আগেই অস্থির নিত্যপণ্যের বাজার : অসহায় ক্রেতা-ভোক্তা

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট কোনো কর্তৃপক্ষও সাধারণ মানুষের এই আকাঙ্ক্ষিত নিত্যপণ্যের বাজার তদারকির ন্যূনতম কোনো দায়িত্ব পালনে আগ্রহ নেই...

টিসিবির ট্রাকে দীর্ঘ সারি ও মধ্যবিত্তের নাভিশ্বাস

সাম্প্রতিক সময়ে দ্রব্যমূল্যের ‘পাগলা ঘোড়া'র সঙ্গে দৌড়াতে গিয়ে হাঁপাচ্ছেন প্রান্তিক মানুষের পাশাপাশি মধ্যবিত্তরাও। ফলে টিসিবি পণ্যের চাহিদা বেড়েছে কয়েক গুণ। সাশ্রয়ী দামে পণ্য কিনতে মানুষ ছুটছে টিসিবির ট্রাকের পিছু পিছু।

ভোজ্যতেলের দাম বৃদ্ধি অগ্রহণযোগ্য ও জনস্বার্থ পরিপন্থী

ভোজ্যতেলের বাজারে রীতিমতো চলছে চরম নৈরাজ্য। বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রস্তাব অনুসারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ভোজ্যতেলের দাম প্রতি লিটারে ৮ টাকা বাড়াল।

বাড়তি দামে স্বস্তি কোথায়?

গ্রাম ও শহরাঞ্চলের প্রান্তিক ও শ্রমজীবী মানুষ যাতে খেয়ে-পরে বাঁচতে পারে, সেজন্য নিত্যপণ্যের দাম যেমন স্থিতিশীল রাখতে হবে...

মূল্য বৃদ্ধির দায় নেবে কে?

অধিকাংশ পণ্যের দাম স্থিতিশীল থাকলেও করোনার লকডাউন পরবর্তীতে কোনো না কোনো পণ্যের দাম বাড়িয়ে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী ভোক্তাদের নাভিশ্বাস তৈরি করছে...

নিত্যপণ্যের বাজার অস্থির কেন?

বিগত দেড় বছর ধরে চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে বারবার লকডাউনে মানুষের একদিকে আয় কমেছে, অন্যদিকে কর্মহীন হয়ে পড়েছে লাখ লাখ মানুষ। করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে অধিকাংশ মানুষের জীবনেই অর্থনৈতিক বিপর্যয় নেমে এসেছে।

বাজার মূল্য নিয়ন্ত্রণ করবে কে?

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ কয়েকটি সংস্থার বাজার মনিটরিং টিম কাজ করলেও তাতে সুফল আসে না। কারণ সকল মনিটরিং টিমগুলো বাজারের পর্যাপ্ত তথ্য সংগ্রহ না করে বাজারে যায়। আবার বাজারে প্রবেশের আগে বাজার সমিতি ও চেম্বারগুলোকে অবহিত করে যায়। বাজার সমিতি ব্যবসায়ীদের আগে থেকেই সর্তক করে দেন।