ঢাকায় বিমানের জরুরি অবতরণ, বন্ধ ছিল ফ্লাইট

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ জুন ২০২২, ০৪:৫৬ পিএম


ঢাকায় বিমানের জরুরি অবতরণ, বন্ধ ছিল ফ্লাইট

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে ফ্লাইটটি নিরাপদে ঢাকায় অবতরণ করে বলে বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে। 

সূত্র জানায়, বরিশাল থেকে ড্যাশ ৮ কিউ-৪০০ মডেলের বিমানটি যাত্রী নিয়ে ঢাকায় আসার সময় কারিগরি ত্রুটির কারণে পাইলট জরুরি অবতরণ করতে চান। পরে ফ্লাইটটি নিরাপদে ঢাকায় অবতরণ করে। ফ্লাইটে মোট ৭৪ জন যাত্রী ছিলেন।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, বিমানের বরিশাল থেকে ঢাকাগামী একটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করেছে। আলহামদুলিল্লাহ সব যাত্রীরা নিরাপদ ও অক্ষত আছেন। কোনো সমস্যা হয়নি।

এ দিকে বিমানবন্দরের রানওয়েতে দায়িত্বরত একজন কর্মকর্তা ঢাকা পোস্টকে বলেন, বিমানটির ল্যান্ডিং গিয়ারে ত্রুটি ছিল। এ কারণে তারা জরুরি অবতরণের সিদ্ধান্ত নেয়। জরুরি অবতরণের পর পরপরই হার্ড ব্রেক করে। এতে প্লেনটি কিছুটা পিছলে পড়ে। কিছুক্ষণ থেমে থাকার পর ধীরে ধীরে পার্কিংয়ে গিয়ে যাত্রী নামানো হয়।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণের সময় ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট প্রস্তুত ছিল। তবে তাদের কাজ করতে হয়নি। এ সময় কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। তবে সেগুলোর প্রয়োজন হয়নি।

শারমিন নামে বিমানের এই ফ্লাইটের একজন যাত্রী ঢাকা পোস্টকে বলেন, ফ্লাইটটি অবতরণের পর পাইলট আমাদের জানান, ল্যান্ডিং গিয়ার ‘আউট অব অর্ডার’ (বিকল/অকেজো) থাকায় ফ্লাইটটি পুশকার্টের মাধ্যমে পার্কিং এলাকায় নেওয়া হচ্ছে।

এ দিকে বিমানের জরুরি অবতরণের কারণে শাহজালাল বিমানবন্দরে ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট বন্ধ ছিল ফ্লাইট। এ সময় সৈয়দপুর থেকে ঢাকাগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট, ইন্ডিগো এয়ারের চেন্নাই থেকে ঢাকাগামী ফ্লাইট, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যশোর ও কক্সবাজার ফ্লাইট, এয়ার ইন্ডিয়ার কলকাতা-ঢাকা ফ্লাইট, জেদ্দা থেকে ঢাকাগামী সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স (সৌদিয়া) একটি ফ্লাইট প্রায় ৩০ মিনিট আকাশে চক্কর দিতে থাকে বলে জানা গেছে।

তবে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ ছিল না। তবে এ কারণে শিডিউল ফ্লাইটগুলো কিছুটা বিলম্বে ছেড়েছে।

জরুরি অবতরণের বিষয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Link copied