অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিককে নিয়ে মিথ্যাচার

‘সংসদ সদস্য ফিরোজ রশীদকে ক্ষমা চাইতে হবে’

Dhaka Post Desk

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

০৩ জুলাই ২০২২, ০৬:৩১ পিএম


‘সংসদ সদস্য ফিরোজ রশীদকে ক্ষমা চাইতে হবে’

‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের পিএইচডি ডিগ্রি নেই’, জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের এমন মন্তব্যকে মিথ্যাচার হিসেবে আখ্যা দিয়ে বিভাগের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে বক্তব্য প্রত্যাহার করে এ সংসদ সদস্যকে ক্ষমা চাওয়ার জন্য বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুরে বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ৩০ জুন কাজী ফিরোজ রশীদ বাজেট অধিবেশনের সমাপনী দিনে বক্তব্য দেওয়ার সময় সম্পূর্ণ অপ্রাসঙ্গিকভাবে অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের পিএইচডি ডিগ্রি নেই বলে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেন। একজন জনপ্রতিনিধির এমন মিথ্যাচারে আমরা গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষকরা অত্যন্ত ক্ষুব্ধ এবং মর্মাহত।

অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিকের পিএইচডির তথ্য তুলে ধরে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক ১৯৮৬ সালে ভারতের বিখ্যাত মহীশুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। পাশাপাশি কৃতি এই শিক্ষক বাংলাদেশের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা শিক্ষার প্রসারে গত চার দশক ধরে অসামান্য অবদান রেখে অজস্র শিক্ষার্থী তৈরি করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিককে নিয়ে করা সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদকে অবিলম্বে ক্ষমা চেয়ে বক্তব্য প্রত্যাহার করার দাবি জানানো হয়।

এইচআর/এসকেডি

Link copied