‘১৫ই ও ২১শে আগস্টে হামলাকারীদের সম্পর্ক রক্তের’

Dhaka Post Desk

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

১৭ আগস্ট ২০২২, ০৭:১৭ পিএম


‘১৫ই ও ২১শে আগস্টে হামলাকারীদের সম্পর্ক রক্তের’

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. আব্দুস সামাদ বলেছেন, ১৫ই আগস্টে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী ও ২১শে আগস্টের হামলাকারীদের সম্পর্ক হলো রক্তের সম্পর্ক। স্পষ্ট করে বলতে গেলে এ সম্পর্ক পিতা-পুত্রের সম্পর্ক।

বুধবার (১৭ আগস্ট) বেলা ১১টায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল ‘১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যা  ও ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা : ঐতিহাসিক সূত্র অনুসন্ধান’ শীর্ষক একটি সেমিনারে মুক্ত আলোচনা সভা ও ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

ড. সামাদ আরও বলেন, আমি গবেষণা করলাম ১৫ই আগস্ট ও ২১শে আগস্টের সংযুক্তি কী এই বিষয়ে। এ সময় তিনি উইলি ব্রান্ডের উক্তি দিয়ে বলেন, ‘১৫ই আগস্টের পর বাঙালিকে আর বিশ্বাস করা যায় না।’ যার প্রমাণ ২১শে আগস্টের ঘটনা। 

আরও পড়ুন :  বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড : নেপথ্যের কুশীলব কারা?

অনুষ্ঠানের শুরুতে নীলদলের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, এ দেশের কিছু দোসর এবং কিছু বিদেশি ষড়যন্ত্রকারী বঙ্গবন্ধুকে  হত্যা করে। শেখ হাসিনা তাদের বিচার শুরু করলে তারা মেনে নিতে পারেনি। তাই তারা ২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়।

সভায় অধ্যাপক ড. মো. আশরাফুল আলম বলেন, যারা ১৫ই আগস্টের হামলা করেছিল তারাই ২১শে আগস্টের হামলার সাথে জড়িত। এই দুটোর যোগসূত্র একই। আসলে একটা জাতিকে ভুলের মধ্যে রাখা হয়েছে। 

আরও পড়ুন :  অলৌকিক মানুষের বাঁশিওয়ালা

আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন নীলদলের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। সভাপতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নীলদলের সভাপতি অধ্যাপক ড. পরিমল বালা। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান নূরে আলম আব্দুল্লাহ্, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোবারক হোসেনসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরা। 

এনএফ

Link copied