আমরা চাষাভুষা নই যে যা খুশি তাই বলবে

Dhaka Post Desk

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, শাবি

১৯ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:০০ পিএম


আমরা চাষাভুষা নই যে যা খুশি তাই বলবে

শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে অশালীন মন্তব্যের অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. লায়লা আশরাফুন বলেছেন, আমরা চাষাভুষা নই যে যা খুশি তাই বলবে।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অনুষ্ঠিত শিক্ষকদের একাংশের মানববন্ধনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

মানববন্ধনে অধ্যাপক ড. লায়লা আশরাফুন বলেন, আমরা সাধারণ শিক্ষক। সম্মানের জন্য কাজ করি এবং সম্মানের জন্যই এ পেশায় এসেছি। আমরা চাষাভুষা নই যে, আমাদের যা খুশি তাই বলবে। আমরা বুদ্ধিজীবী শ্রেণিতে বিলং করি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ রক্ত দিয়ে দেশকে স্বাধীন করেছে। সেই বাংলাদেশে দাঁড়িয়ে আমরা ২০২২ সালে এসে কেন এ অপমানের শিকার হব। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি আরও বলেন, আমরা কেমন শিক্ষার্থী তৈরি করছি যে, আমাদের নিয়ে যা খুশি তাই বলবে। শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের হামলার বিষয়ে তিনি বলেন, এটি আমরা জানি না। এ হামলা কে বা কারা করেছে। এটি নিয়ে তদন্ত হওয়া উচিত। রাষ্ট্র এ তদন্তের কাজ করতে পারে।

তবে এ অভিযোগ নাকচ করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, আন্দোলনকে তারা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে এ প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী শরমিলা সিদ্দিকা মিলা বলেন, অধ্যাপক ড. লায়লা আশরাফুন তার বক্তব্যের মাধ্যমে শ্রেণি বৈষম্য তৈরি করছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো একটি জায়গায় শিক্ষকতা করেও এমন মন্তব্য আমরা কখনোই তার কাছ থেকে আশা করি না। যেখানে একটি পেশাকে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা হয়েছে। কিন্তু চাষাভুষারা তো আমাদেরই পূর্ব পুরুষ। আমরা এই বক্তব্যেরও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

আন্দোলনরত আরেক শিক্ষার্থী শাহরিয়ার আবেদিন বলেন, আমাদের আন্দোলন থেকে কোনো শিক্ষার্থী শিক্ষকদের নিয়ে এমন মন্তব্য করেনি। যদি বাইরে থেকে কেউ করে থাকে তাহলে আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এদিকে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের ওপর পুলিশ হামলা করেছে কই তারা তো এটা নিয়ে কিছু বলেননি।

তিনি বলেন, ভিসি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সম্পর্কে ফাঁস হওয়া এক অডিওতে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন, এটা নিয়েও তারা কিছু বলেননি। আমরা মনে করছি, আমাদের যৌক্তিক আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে এ প্রোপাগান্ডা চালানো হচ্ছে।

জুবায়েদুল হক রবিন/আরআই

টাইমলাইন

Link copied