অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেনের শব্দে ভারি শাবির আকাশ-বাতাস

Dhaka Post Desk

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, শাবি

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:১৮ পিএম


অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেনের শব্দে ভারি শাবির আকাশ-বাতাস

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবিতে টানা ১২তম দিনের মতো চলছে আন্দোলন। টানা সপ্তম দিনের মতো অনশনে শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যে প্রায় সব শিক্ষার্থীই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। একটু সুস্থ হলে তারা আবার ফিরে এসেছেন অনশনস্থলে।

এদিকে মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) পর্যন্ত উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে ইতোমধ্যেই অনশনের প্রায় ১৫০ ঘণ্টা পার হয়েছে।

গত ১৯ জানুয়ারি বিকেলে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে তার বাসভবনের সামনে আমরণ অনশন শুরু করেন ২৪ শিক্ষার্থী। এরপর শিক্ষার্থীরা গণ অনশনের ঘোষণা দিলে রোববার আরও পাঁচ শিক্ষার্থী অনশনে যোগ দেন। অনশনে বসার পরদিন থেকেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। কিছু সময় পরপরই থেমে থেমে বেজেছে অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন। হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অনশনে বসা প্রায় সব শিক্ষার্থী।

অনশনে বসা শিক্ষার্থীদের হাসপাতালে ভর্তি করার পর একটু সুস্থ হলেই আবারও ফিরে এসেছেন অনশনস্থলে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে কেউ কেউ একাধিকবার গিয়েছেন হাসপাতালে। একটু সুস্থ হলেই তারা আবার ফিরে এসেছেন অনশনস্থলে।

শিক্ষার্থীদের হাসপাতালে পৌঁছে দিতে প্রস্তুত রয়েছে দুইটি অ্যাম্বুলেন্স। একটু পরপরই শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে ছুটছেন শিক্ষার্থীদের। অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেনের শব্দে যেন ভারি হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আকাশ-বাতাস।

আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের ভাই-বোনরা উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অনশন করছে। তারা সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েছে। একটু পরপরই তাদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে হাসপাতালে। যত সময় যাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেনের শব্দ শুনলেই কেমন যেন মনে হয়। এই বুঝি কোনো দুর্ঘটনা ঘটল। আমরা চাই উপাচার্য দ্রুত পদত্যাগ করবেন এবং আমাদের এ কষ্ট থেকে মুক্তি দেবেন।

জুবায়েদুল হক রবিন/আরআই

Link copied