মহেশপুরে স্বামীর কুড়ালের আঘাতে প্রাণ গেল স্ত্রীর

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ

০৭ মে ২০২২, ০৮:১৫ এএম


মহেশপুরে স্বামীর কুড়ালের আঘাতে প্রাণ গেল স্ত্রীর

ঝিনাইদহের মহেশপুরে স্বামীর কুড়ালের আঘাতে জুলিয়া খাতুন (২৩) নামে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (০৬ মে) রাত ৮টার দিকে উপজেলার সেজিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ স্বামী বাবলু রহমানকে (২৭) আটক করেছে।

বাবলু রহমান সেজিয়া গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে ও জুলিয়া একই এলাকার আবুল কালামের মেয়ে।

গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, বাবলু মাদক সেবন করে প্রায়ই স্ত্রীকে মারধর করতেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকত। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে বাবলু ঘরে থাকা কুড়াল দিয়ে জুলিয়াকে কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায় সে। খবর পেয়ে মহেশপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাবলুকে আটক করে।  

নেপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সামছুল আলম জানান, বাবলুর মাথায় সমস্যার কারণে মাঝেমধ্যে পাগল হয়ে যায়। আবার চিকিৎসা করালে ভালো হয়। ওর যখন মাথায় সমস্যা হয়, তখন বাড়ির সব কিছু ভাঙচুর করে, পরিবারের সবার সঙ্গে ঝগড়া করে। আজও মাথায় সমস্যার কারণে কুড়াল দিয়ে স্ত্রীর মাথায় আঘাত করে। হাসপাতালে নেওয়ার আগেই সে মারা যায়।

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মোহা. রাকবির হোসেন ঢাকা পোস্টকে বলেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। তার মাথা ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম মিয়া বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে স্বামী উত্তেজিত হয়ে কুড়াল দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে পরিবারের লোকজন জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাবলুকে আটক করা হয়েছে। 

এসপি

Link copied