কাশিয়ানীতে বাস-প্রাইভেট কার সংঘর্ষে নিহত ৮

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ

১৪ মে ২০২২, ১২:১৯ পিএম


কাশিয়ানীতে বাস-প্রাইভেট কার সংঘর্ষে নিহত ৮

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলায় বাস-প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। তাদের কাশিয়ানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (১৪ মে) বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা ইউনিয়নের দক্ষিণ ফুকরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক (চ. দা.) মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, বাস-প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় ২৫ জনকে উদ্ধার করেছি। আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য কাশিয়ানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত ও আহত ব্যক্তিরা কে কোন পরিবহনের যাত্রী তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রায়হান ঢাকা পোস্টকে জানান, খুলনা থেকে রাজীব পরিবহনের একটি বাস ঢাকার দিকে যাচ্ছিল এবং ঢাকা থেকে খুলনার দিকে যাচ্ছিল একটি প্রাইভেট কার। দক্ষিণ ফুকরা এলাকায় এ দুটির মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় একটি মোটরসাইকেলও এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ঘটনাস্থলেই সাতজন নিহত হন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দেয়। এ মুহূর্তে সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক আছে।

বিকেলে স্থানীয় কয়েকটি সূত্রে এ ঘটনায় হতাহত ব্যক্তিদের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহত ব্যক্তিরা হলেন ঢাকা বারডেম হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. বাসুদেব কুমার সাহা (৫২), তার স্ত্রী শিবানী সাহা (৪৮), তাদের ছেলে আহছান উল্লাহ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইইই বিভাগের শিক্ষার্থী স্বপ্নীল সাহা (১৯), তাদের ব্যক্তিগত গাড়িচালক আজিজুর ইসলাম (৪৪), কাশিয়ানী উপজেলার দক্ষিণ ফুকরা গ্রামের পিয়ার আলী মোল্যার ছেলে ফিরোজ মোল্যা (৪৮) ও তার স্ত্রী রুমা বেগম (৪০) এবং ওই গ্রামের জিন্দা ফকিরের ছেলে অনিক বাবু (২৮) ও কাশিয়ানী উপজেলার খায়েরহাট এলাকার পিয়ার আলী ফকিরের মেয়ে কলেজছাত্রী ইয়াসমিন আক্তার (১৯)। 

আহতদের মধ্যে ১৯ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন গোপালগঞ্জের দিদার শরীফ (৫০), সোবাহান (৩৮), রুমা (৩০), মাসুম মোল্লা (১৩), ইসমত আরা (৪০), আলিফ (৫), সিফাত (৩), নড়াইলের বাদল (২৫), বায়েজিদ (১২), মারুফ (২২), ঢাকার আরজু বেগম (৩৫), ফারুক হোসেন (৫০), হিরা বেগম (৩৬), হাওয়া বেগম (৩৪), হোসাইন (১২), আব্দুর রহমান (৫), পিরোজপুরের কালাম মোল্যা (৪৭), কামরুল (৪৬) ও শরীয়তপুরের জোহরা বেগম (৭৫)।

এনএ/জেএস

Link copied