গোডাউনে মিলল ৫৪২ বস্তা সরকারি চাল

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুর

২৬ মে ২০২২, ০২:৪২ এএম


গোডাউনে মিলল ৫৪২ বস্তা সরকারি চাল

রংপুর নগরীর একটি গোডাউন থেকে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি এবং ওএমএসের ৫৪২ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা চালের বাজারমূল্য আনুমানিক সাত লাখ ৮৪ হাজার ৮০০ টাকা। একইসঙ্গে গোডাউনটি সিলগালা করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ ঘটনায় গোডাউন মালিক মাহফুজার রহমান ও কর্মচারী মিন্টু মিয়াকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (২৫ মে) বিকেল নগরীর উত্তর আশরতপুর এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালনা করেন। সার্বিক সহযোগিতায় সঙ্গে পুলিশ সদস্যরাও ছিলেন। গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআইয়ের তথ্যের ভিত্তিতে বিকেল ৪টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (রাজস্ব শাখা, ভূমি অধিগ্রহণ শাখা) আমিনুল ইসলাম। অভিযানে আরও ছিলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আরিফ মিয়া, জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট (আর এম শাখা, রেকর্ডরুম শাখা ও ব্যবসা বাণিজ্য ও বিনিয়োগ শাখা) শেখ তাকী তাজওয়ার প্রমুখ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম জানান, এনএসআইয়ের দেওয়া তথ্যের সূত্র ধরে পুলিশের উপস্থিতিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উত্তর আশরতপুর এলাকায় মাহফুজার রহমানের মালিকানাধীন গোডাউনে দীর্ঘ পাঁচ ঘণ্টা তল্লাশি চলে। একপর্যায়ে সেখান থেকে মোট ৫৪২ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। এসব চালের বস্তায় ওএমএস ও প্রধানমন্ত্রীর খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল লেখা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গোডাউনের মধ্যে অন্যান্য চালের ভেতরে এই বস্তাগুলো লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। এরমধ্যে বেশকিছু বস্তার চাল অন্য বস্তায় ঢুকানো হয়েছে। অভিযানের শুরু থেকে মিথ্যার আশ্রয় নেওয়া ও তথ্য গোপন করে বিভিন্নভাবে নিজেকে রক্ষার চেষ্টা করেন ওই গোডাউনের মালিক ও সংশ্লিষ্ট কর্মচারীরা। প্রাথমিকভাবে সরকারি চাল গোডাউনে মজুত রাখার অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আরও অধিকতর তদন্তের জন্য গোডাউনটি সিলগালা করা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে অভিযান চলাকালীন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গোডাউনের মালিক মাহফুজ লালমনিরহাটের বিজিবির কাছ থেকে এসব চাল কিনেছেন বলে দাবি করেন। তবে ওএমএসের চালের বস্তা সম্পর্কে তিনি কোনো সন্তোষজনক জবাব দিতে পারেননি।

বর্তমানে সিলগালা করা গোডাউনটি দেখাশোনার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রহমত উল্লাহ বাবলাকে।

এ ঘটনায় গোডাউনের মালিক মাহফুজার রহমান ও তার কর্মচারী মিন্টু মিয়াকে আটক করা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে রয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম।

ফরহাদুজ্জামান ফারুক/এমএইচএস

Link copied