বাবার ইজিবাইক চালাতে গিয়ে কিশোর নিখোঁজ

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নীলফামারী

২২ আগস্ট ২০২২, ০৭:৪৫ এএম


বাবার ইজিবাইক চালাতে গিয়ে কিশোর নিখোঁজ

আরিফ

নীলফামারীর ডোমারে বাবার ইজিবাইক নিয়ে বের হওয়ার চার দিন পার হলেও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না কিশোর আরিফের (১৪)। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে সে ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় আরিফ। এরপর রাত ১০টা থেকে তার ব্যবহৃত মুঠোফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় শনিবার ডোমার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

নিখোঁজ আরিফ হোসেন উপজেলার ছোট রাউতা এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। গায়ের রং শ্যামলা, মুখমন্ডল লম্বাটে, উচ্চতায় ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি। বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় তার পরনে ছিল নীল রঙের জিন্স প্যান্ট এবং সাদা  গেঞ্জি। কেউ তার সন্ধান পেলে ০১৭৮৩৩৭৭০৩৪ এই নম্বরে ফোন করে পরিবারকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে পারেন।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাবার ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় আরিফ। এরপর রাতে বাসায় না আসলে আত্মীয়-স্বজনদের এবং বন্ধুদের বাড়িতে খোঁজ নিয়েও কোনো সন্ধান মেলেনি। এছাড়া আরিফের ব্যবহৃত মোবাইলে বার বার কল দিলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়। বিভিন্ন স্থানে খোঁজার পরও আরিফকে পাওয়া না গেলে তার বোন ঝর্ণা আক্তার কেয়া ডোমার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

ঝর্ণা আক্তার কেয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, শুক্রবার আমার বাবার চার্জার অটোটি নিয়ে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার পর অনেক রাত হলেও সে বাড়ি ফেরেনি। আমরা তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে কল করলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। এলাকার বিভিন্ন স্থান, আত্মীয়-স্বজনদের বাড়ি, হাট-বাজার এবং বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করেও তার খোঁজ পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ আরিফের চাচাতো ভাই মিনাল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, স্ট্যান্ডের বাকি অটোচালকদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, কয়েকজন লোক তার অটো রিজার্ভ করে সাকোয়ার উদ্দেশে যায়। এরপর থেকে আর তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ নবী ঢাকা পোস্টকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি নিখোঁজের জিডি করা হয়েছে। আমরা এটা নিয়ে কাজ করছি।

এসপি

Link copied