পুলিশের সামনেই অস্ত্র হাতে আধিপত্যের মহড়া

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৪৪ পিএম


পুলিশের সামনেই অস্ত্র হাতে আধিপত্যের মহড়া

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে পূর্বশত্রুতার জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। অস্ত্র হাতে অধিপত্যের জানান দিতে দুই পক্ষ একে অপরকে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও টেঁটা নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশের সামনেই দেশীয় অস্ত্র হাতে দেখা যায় তিন যুবককে।

সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার উপজেলার মদনপুরে এ ঘটনা ঘটে। এতে একজন আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানা গেছে। তবে আহত ব্যাক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

সংঘর্ষের ঘটনায় ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরলে বন্দর থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যেয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসময় পুলিশ দুই পক্ষকে নিবিৃত করার সময়ও তাদের অস্ত্র হাতে সরব উপস্থিতি ও মহড়া দিতে দেখা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মদনপুরে আন্দিরপাড়ের আলিম গং এবং সোহেল ও খলিল মেম্বার গ্রুপের মধ্যে পূর্বশত্রুতার জেরে এ সংঘর্ষ হয়। দিনব্যাপী দুই গ্রুপের মারমুখি ভূমিকার কারণে স্থানীয়রা আতঙ্কে ছিলেন। পরে দুপুর আড়াইটা থেকে টানা এক ঘণ্টা চলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। বিকেল সাড়ে ৩টায় সংঘর্ষ শুরু হলে উভয়পক্ষ চাপাতি, রামদা, ছুরি, টেঁটাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে একে অপরকে ধাওয়া করে।

এ বিষয়ে বন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা ঢাকা পোস্টকে বলেন, পূর্বশত্রুতার জেরে ও আধিপত্যের লড়াইয়ে তারা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। তবে ঘটনার পরপরই পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে একজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। 

পুলিশের সামনে দেশীয় অস্ত্র হাতে কয়েকজন যুবককে দেখা যাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ওই ঘটনায় আমরা তিনজনকে আটক করেছি। অস্ত্র হাতে কোনো মহড়া দেওয়া হয়নি। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে। 

আরএআর

Link copied