শিগগিরই করতোয়ায় ওয়াই স্টাইলে সেতু নির্মাণ করা হবে : রেলমন্ত্রী

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, পঞ্চগড়

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৩২ এএম


শিগগিরই করতোয়ায় ওয়াই স্টাইলে সেতু নির্মাণ করা হবে : রেলমন্ত্রী

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার মাড়েয়ার আউলিয়া ঘাটে ভয়াবহ নৌকাডুবির ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, মাড়েয়ার আউলিয়া ঘাটে নৌকাডুবিতে মৃত্যুর ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে মন্ত্রী এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, শিগগিরই মাড়েয়া ইউনিয়ন ও কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়নের মধ্যকার বিভাজন করা দুই পাড়ের সংযোগ দিয়ে করতোয়া নদীতে ওয়াই স্টাইলে দৃষ্টিনন্দন সেতু নির্মাণ করা হবে। এজন্য দরপত্র থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম দ্রুতই হাতে নেওয়া হবে।

জানা গেছে, পঞ্চগড়ের মাড়িয়াগঞ্জ ও কালিয়াগঞ্জ দুটি ইউনিয়নকে পৃথক করেছে করতোয়া নদী। এই অঞ্চলে দীর্ঘদিন ধরেই একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছিল স্থানীরা। বোদা উপজেলায় যাতায়াত করতে প্রতিদিন হাজারও মানুষ মাড়েয়া-কালিয়াগঞ্জ ইউনিয়নের বিভাজন করা করতোয়া নদী পার হয় ডিঙ্গি নৌকায়। নৌকাগুলো চলে স্যালো মেশিনের মাধ্যমে। এসব নৌকায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা পারাপার হয়ে থাকে। 

স্থানীয়রা জানায়, প্রতি বছর বোদার মাড়েয়ায় বদেশ্বরী মন্দিরে মহালয়ার দিনে বিশেষ পূজা অর্চনার আয়োজন করা হয়। জনশ্রুতি রয়েছে, সীতার ১৬টি খণ্ডের একটি খণ্ড এ মন্দিরে রাখা হয়েছিল। এ কারণে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এই মন্দিরে পূজা দিতে আসেন অগণিত মানুষ। দীর্ঘ দিন ধরেই এ বদেশ্বরী মন্দিরে আসতে মাড়েয়া ইউনিয়নের এই আউলিয়া ঘাট ব্যবহার করা হচ্ছে। 

নানা ভোগান্তি নিয়ে নদী পারপার করে আসা দুই পাড়ের মানুষজন একটি সেতুর দাবি জানিয়ে আসছিলেন দীর্ঘ দিন ধরে। গত বছর রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন ঘাটটি পরিদর্শন করে সেতু নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তারও আগে ২০১৮ সালে ২৩ জানুয়ারি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) একটি বিশেষজ্ঞ দল আউলিয়ার ঘাট এলাকায় পানি ও নদীর গতিপথ নির্ণয় ও সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাই করেছিলেন বলে জানা যায়। 

বিশেষজ্ঞ দলটি প্রাথমিক পর্যায়ে সেতু নির্মাণের জন্য দুটি সাইট সিলেকশনও করেছিলেন। এর মধ্যে একটি বদেশ্বরী মন্দির থেকে সোজা পশ্চিমে, অপরটি বর্তমান আউলিয়া ঘাট এলাকায় ওয়াই ডিজাইনের। করতোয়া নদীর আউলিয়া ঘাটে সেতু নির্মাণের জন্য উচ্চ পর্যায়ের এই বিশেষজ্ঞ টিমে সদস্য হিসেবে ছিলেন প্রফেসর ড. শাহজাহান মন্ডল, প্রফেসর ড. সুজিত কুমার বালা, প্রফেসর ড. জিএম তরিকুল ইসলাম।

স্থানীয়রা বলছেন, মাড়েয়া-কালিয়াগঞ্জ মধ্যকার বিভাজন করা করতোয়া নদীতে একটি সেতু থাকলে আজ স্মরণকালে এমন ভয়াবহ নৌকা ডুবে এত মানুষের মৃত্যু দেখতে হতো না। এজন্য এই শোক থাকতে থাকতেই করতোয়ায় সেতু নির্মাণ চান। রেলমন্ত্রীর দেওয়া আশ্বাসের দ্রুত বাস্তবায়ন চান তারা।

প্রসঙ্গত, রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে বোদা উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়নের আউলিয়া ঘাট এলাকায় নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আর এখনো ৬৫ জন নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। আজ সোমবার সকাল থেকেই চলছে নিখোঁজদের উদ্ধার কার্যক্রম। 

এসপি

টাইমলাইন

Link copied