তদন্তে গিয়ে গৃহবধূর সঙ্গে প্রেম, ধর্ষণ মামলায় কারাগারে এসআই

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি

নীলফামারী

০৭ অক্টোবর ২০২২, ০১:৩১ এএম


তদন্তে গিয়ে গৃহবধূর সঙ্গে প্রেম, ধর্ষণ মামলায় কারাগারে এসআই

নীলফামারীর ডোমারে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে মহাবীর ব্যানার্জি নামে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শককে (এসআই) কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে বিকেল ৩টার দিকে ডোমার থানায় ধর্ষণ অভিযোগে মামলা করেন উপজেলার চিকনমাটি এলাকার ভুক্তভোগী এক গৃহবধূ।

অভিযুক্ত মহাবীর ব্যানার্জি বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ জেলা র‍্যাবে কর্মরত। এর আগে তিনি ডোমার থানায় কর্মরত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, দাম্পত্য কলহের জেরে এক বছর আগে স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন ওই গৃহবধূ। বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব পান ডোমার থানার এসআই মহাবীর। তদন্তের সুবাদে তাদের মধ্যে যোগাযোগ ও সুসম্পর্ক হয়। ছয় মাস আগে ডোমার থানা থেকে বদলি হলেও মোবাইলে তাদের যোগাযোগ অব্যাহত ছিল।

একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত বুধবার রাতে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন মহাবীর। বিষয়টি বুঝতে পেরে স্থানীয়রা তাকে আটক করে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ জানান, এর আগেও গত ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেন মহাবীর। বুধবার রাতের ঘটনার পর বিষয়টি মীমাংসার জন্য বিচারে বসা হয়েছিল। কিন্তু মহাবীর বিয়েতে রাজি হননি। এ কারণে ওই গৃহবধূ থানায় মামলা করেছেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই। কথাবার্তায় মনে হয়েছে- তাদের মধ্যে একটা সম্পর্ক ছিল। পরে কোনো অভিভাবক না আসায় তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

ডোমার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ উন নবী বলেন, আসামি মহাবীরকে হাজির করা হলে আদালতে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে।

শরিফুল ইসলাম/এমএইচএস

Link copied