সেপটিক ট্যাঙ্কে ছেলে, উদ্ধারে নেমে উঠলেন না মাসহ নিরাপত্তাকর্মী

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ

০৩ মার্চ ২০২১, ২২:২৬

সেপটিক ট্যাঙ্কে ছেলে, উদ্ধারে নেমে উঠলেন না মাসহ নিরাপত্তাকর্মী

সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে ৩ লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস

ময়মনসিংহের ভালুকায় কারখানার সেপটিক ট্যাঙ্কে শিশুসন্তানকে পড়ে যাওয়া দেখে তাকে উদ্ধার করতে নামেন মা। পরে তারা উঠে না আসায় সেপটিক ট্যাঙ্কে নামেন এক নিরাপত্তাকর্মী। তাদের তিনজনের কেউ উঠে না আসায় শ্রমিকরা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের দল এসে তাদের লাশ উদ্ধার করে।

বুধবার (৩ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলার ধীতপুর ইউনিয়নের বহুলি এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। রাত সোয়া ৮টার দিকে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সন্ধ্যায় বহুলি এলাকায় প্রভিটা ফিড কোম্পানির সেপটিক ট্যাঙ্কের ঢাকনার ভাঙা অংশ দিয়ে রোহিত বাগচি (৪) নামে এক শিশু পড়ে যায়। সে সজল বাগচির ছেলে।

শিশুসন্তান ট্যাঙ্ককে পড়ে গেছে দেখতে পেয়ে মা রুলি বাগচি (২৭) সেখানে নামেন তাকে উদ্ধার করতে। কিন্তু তারা উঠে না আসায় তাদের উদ্ধার করতে যায় হৃদয় মিয়া (২২) নামে এক নিরাপত্তাকর্মী। কিন্তু কেউ উঠে না আসায় কারখানার অন্য শ্রমিকরা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়।

পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে পুলিশ ও ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। রাত সোয়া ৮টার দিকে শিশু রোহিত, তার মা রুলি ও নিরাপত্তাকর্মী হৃদয়ের লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দল।

রুলি বাগচিদের বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বলদিপুকুরপাড় এলাকায়। প্রভিটা ফিডের কারখানায় রুলি কাজ করতেন।

ভালুকা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশ তিনটি উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

উবায়দুল হক/এমএসআর

Link copied