স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা কারাগারে

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

১৭ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৩৭ পিএম


স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা কারাগারে

স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক ও হত্যা প্রচেষ্টা মামলায় খুলনার সোনাডাঙ্গা থানা পুলিশের সাবেক এসআই সোবহান মোল্লাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) খুলনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক আব্দুস ছালাম খান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী মোমিনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
                                               
এর আগে ২০২১ সালে ১৫ ডিসেম্বর এসআই সোবহান মোল্লার দ্বিতীয় স্ত্রী ফারজানা তার স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। সোবহান মোল্লা বর্তমানে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশে কর্মরত রয়েছেন।

আইনজীবী মোমিনুল ইসলাম বলেন, গত ৬ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পুলিশ পরিদর্শক লুৎফর রহমান আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। ১৩ সেপ্টেম্বর এসআই সোবহান মোল্লার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এরপর তিনি উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জামিন লাভ করেন।

গতকাল বুধবার আদালতে তার আত্মসমর্পণ করার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তিনি সেদিন আদালতে উপস্থিত হোননি। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ কর্মকর্তা পূর্বের বিয়ের তথ্য গোপন রেখে ২০২০ সালের ১২ মে ফারজানা বিনতে ফাকেরকে ৩ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে বিয়ে করেন। তখন তিনি সোনাডাঙ্গা থানায় কর্মরত ছিলেন। বিয়ের পর থেকে দ্বিতীয় স্ত্রীকে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন ও একাধিকবার মারপিট করে হাসপতালে ভর্তি করেন। উপায় না পেয়ে ২০২১ সালের ১৫ ডিসেম্বর খুলনার নারী ও শিশু শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন তার স্ত্রী ফারজানা বিনতে ফাকের। 

মোহাম্মদ মিলন/এমএএস 

Link copied