খুলনায় তক্ষকসহ আটক চারজনের জেল-জরিমানা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

২২ নভেম্বর ২০২২, ০১:১৩ এএম


খুলনায় তক্ষকসহ আটক চারজনের জেল-জরিমানা

খুলনায় তক্ষকসহ চারজনকে আটক করেছে র‍্যাব-৬। সোমবার (২১ নভেম্বর) রাতে খুলনার রূপসা স্ট্যান্ড রোডের ডাক্তার গলির একটি বাড়ি থেকে ১৭ সেন্টিমিটারের তক্ষকটি উদ্ধার ও চারজনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় আটক চারজনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জেল-জরিমানা প্রদান করা হয়েছে।  

র‌্যাব ৬ খুলনার সহকারী পরিচালক লে. আবুল কালাম আজাদ ঢাকা পোস্টকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, তিনজনকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, একজনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পরে তক্ষকটি অবমুক্ত করার জন্য বন অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, রূপসা স্ট্যান্ড রোড মোল্লা বাড়ি এলাকার রুস্তম আলীর ছেলে আরিফুল ইসলাম সাগর (৪৩), সোনাডাঙ্গা সবুজবাগ এলাকার আশরাফ শেখের ছেলে ফারুক হোসেন বাপ্পী (৩০) এবং খালিপুর চিত্রালী এলাকার মো. সুলতানের ছেলে মো. আব্দুর রাজ্জাককে (৪৫) ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া পিরোজপুরের মো. মিজানকে (৩৪) দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  

খুলনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অপ্রতিম কুমার চক্রবর্তী এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

র‌্যাব ৬ সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র নগরীর রূপসা স্ট্যান্ডরোড এলাকায় তক্ষক কেনাবেচা করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার রাত ৮টার দিকে অভিযান পরিচালনা করা হয়। সেখান থেকে একটি তক্ষক উদ্ধার করা হয়। আটক আরিফুল ইসলাম তক্ষক বিক্রেতা। গহীন জঙ্গল থেকে এ তক্ষক সংগ্রহ করে এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের কাছে তা বিক্রি করতেন। সোমবার তক্ষকটি ক্রয় করার জন্য তিনজন মোল্লাবাড়িতে আসেন। সেখানে দরদাম করার সময়ে চারজনকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আরিফুল ইসলাম, ফারুক হোসেন বাপ্পী ও মো. আব্দুর রাজ্জাককে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এ সময় মো. মিজানের ২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।  

মোহাম্মদ মিলন/এসকেডি

Link copied