একটি স্কুলে পরীক্ষার্থী দুইজন, পাস করেনি কেউই

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নীলফামারী

২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৪৯ পিএম


একটি স্কুলে পরীক্ষার্থী দুইজন, পাস করেনি কেউই

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় পশ্চিম খড়িবাড়ী আছিয়া খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় কোনো শিক্ষার্থীই পাস করেনি।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত ফলাফলে কোনো শিক্ষার্থী পাস না করা ৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকায় ওই প্রতিষ্ঠানের নাম পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটিতে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে রেজিস্ট্রেশন করে চারজন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে দুইজন। বাকি দুইজনের বিয়ে হওয়ায় তারা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি। তবে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া দুইজনই ফেল করেছে। এদিকে প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত না হওয়ার কারণের শিক্ষকদের অবহেলায় থমকে গেছে পড়ালেখার মান। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে, প্রতিষ্ঠানটিতে শিক্ষা কর্মকর্তাদের নেই কোনো তদারকি।
 
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু সায়ীম বলেন, আমার প্রতিষ্ঠান থেকে এবারেই প্রথম মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে। চারজন শিক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশন করেছিল। এর মধ্যে দুইজনের বিয়ে হয়ে গেছে। আর দুইজন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলেও তারা পাস করতে পারেনি। এই দুইজনের মধ্যে একজন প্রতিবন্ধী, অপরজনেরও বিয়ে হয়ে গেছে। তাদের ওপর আর কীভাবে চাপ প্রয়োগ করে পাস করাবো। যেহেতু এ বছর প্রথম, আগামী বছর আমার স্কুল ঘুরে দাঁড়াবে ইনশাল্লাহ।

উপজেলা শিক্ষা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হালিম বলেন, তারা হয়তো শিক্ষার্থীদের পড়ায়নি তাই পাস করতে পারেনি। ওখানে এমপিও নাই, বিলও নাই। ওখানে আমরা আর কি বলবো।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। খোঁজ নিয়ে জানাবো

প্রসঙ্গত, এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ৩ হাজার ৭৮৯টি কেন্দ্রে ২৯ হাজার ৬৩৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১৯ লাখ ৯৪ হাজার ১৩৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে রাজশাহীর দুটি, যশোরের একটি, দিনাজপুরের পাঁচটি, ময়মনসিংহের একটি এবং মাদরাসা বোর্ডের ৪১টিসহ মোট ৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষার্থী পাস করতে পারেনি।

শরিফুল ইসলাম/এমএএস

Link copied