পাইকগাছায় বিএনপির ৬ নেতাকর্মী আটক, বিস্ফোরক আইনে মামলা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৫৭ পিএম


পাইকগাছায় বিএনপির ৬ নেতাকর্মী আটক, বিস্ফোরক আইনে মামলা

খুলনার পাইকগাছায় বিএনপির ছয় নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। নাশকতার পরিকল্পনা ও পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপের অভিযোগে মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) তাদেরকে আটক করা হয়। পরে বুধবার (৭ ডিসেম্বর) এ ঘটনায় পাইকগাছা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সুকান্ত কর্মকার বাদী হয়ে আটক ছয়জনসহ ৩৪ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা ৬০/৭০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

আটককৃতরা হলেন- পাইকগাছা উপজেলা শ্রমিক দলের আহ্বায়ক সরদার ফারুখ আহম্মেদ (৫২), লস্কর ইউনিয়ন বিএনপির সদস্য মো. খান জাহান আলী (৫২), বিএনপি সমর্থক কপিলমুনির কামরুল ইসলাম (৫২), চাঁদখালীর মৌখালী গ্রামের বনি আমিন (৩৫), রাড়ুলীর শ্রীকণ্ঠপুর গ্রামের মো. হালিম সরদার (৫২) ও কপিলমুনির কাশিমনগর গ্রামের আব্দুল আজিজ শেখ (৩৭)।

এছাড়া মামলার অন্যান্য আসামিরা হলেন- শেখ ইকবাল হোসেন, হাবিবুর গাজী, হাবিবুর রহমান, শহিদুল শেখ, ইব্রাহীম আলী, শাহিন গাজী, হবি মোল্লা, নজরুল গাজী, আব্দুস সবুর গাইন, সাইদ সানা, জাহাঙ্গীর সানা, মনিরুল জোয়াদ্দার, কাজী তামজীদ আলম, এনামুল হক সানা, নুর এ আলম সিদ্দিকী, মো. ফিরোজ আলী সরদার, হাবিব শেখ, সবেদ আলী গাজী, মো. হাসেম আলী, ইকবাল হোসেন, মীর কুদ্দুস মোড়ল, মোস্তাক গোলদার, ছাত্তার মোড়ল, আনারুল, আব্দুল মজিদ সরদার, মো. গাজী, গফুর আলী, সাহেব আলী গাজীসহ অজ্ঞাতনামা ৬০/৭০ জন।

পাইকগাছা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউর রহমান বলেন, মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার রাড়ুলী ইউনিয়নের শ্রীকণ্ঠপুর গ্রামের গফ্ফার মিস্ত্রির পরিত্যক্ত রাইস মিলের চাতালে বহু লোকজন সমবেত হয়ে আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ থেকে সরকার উৎখাত, নাশকতা ও ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড ঘটানোর পরিকল্পনা করছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা ককটেল ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশ ৬ জনকে আটক করে। ঘটনাস্থল থেকে ২টি ককটেল বোমা সাদৃশ্য বস্তু ও বিস্ফোরিত ককটেল বোমার অংশ বিশেষ উদ্ধার করে পুলিশ।

মোহাম্মদ মিলন/এমজেইউ 
  

Link copied