বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল মৌলভীবাজার শহরবাসী

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার 

১১ এপ্রিল ২০২১, ১৯:১৭

বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল মৌলভীবাজার শহরবাসী

প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। 

মৌলভীবাজার শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট চৌমুহনার একটি ভবনে হঠাৎ বৈদুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগে যায়। এরপর আশপাশের ভবনগুলোতে থাকা লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ছুটে আসে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম। প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস। 

রোববার (১১ এপ্রিল) বিকেলে মৌলভীবাজার শহরের চৌমুহনা এলাকার প্রাইম হার্ডওয়্যারের ভবনে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক উদ্ধার অভিযান চালানোয় বড় ধরনের দুর্ঘটনার হাত থেকে শহরবাসী রক্ষা পেয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। 

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রাজন আহমদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, যখন আগুন লাগে তখন প্রচণ্ড শব্দ হচ্ছিল। কেউ ভয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেনি। আমি সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়ার জন্য এক ভাইকে বলি। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এটি শহরের সবচেয়ে জনবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। যদি আগুন আশপাশে ছড়িয়ে পড়তো, তাহলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যেত। 

প্রাইম হার্ডওয়্যারের মালিক রাসেল আহমদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, আসলে বড় ধরনের কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। আগুন যদি নিচ তলায় চলে আসতো তাহলে আমাদের প্রায় ৭০ থেকে ৮০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে যেত। আমার প্রতিষ্ঠান বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে। 

মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের ফায়ারম্যান মারুফ মিয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, নিচ তলার পুরোটাই মার্কেট। যদি আগুন নিচে ছড়িয়ে পড়তো তাহলে আরও বড় ক্ষয়ক্ষতি হয়ে যেত। আমরা খবর পেয়ে প্রায় তিন লাখ টাকার মালামাল উদ্ধার করেছি। আগুনে প্রায় ২০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। জনবহুল এলাকায় আগুন লেগেছিল। সময় মতো আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে মৌলভীবাজার শহরবাসীর বড় ধরনের ক্ষতি হতো।

ওমর ফারুক নাঈম/আরএআর

Link copied