সবজিক্ষেতের মালিককে পিটিয়ে মারলেন ছাগলের মালিক

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, গাজীপুর

১৫ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৩৩


সবজিক্ষেতের মালিককে পিটিয়ে মারলেন ছাগলের মালিক

সবজিক্ষেত নষ্ট করেছে ছাগল। তাই তাকে জবাই করে খেয়েছেন ক্ষেতের মালিক। এ নিয়ে ছাগলের মালিক ও সবজিক্ষেতের মালিকের সঙ্গে হয় বাগবিতণ্ডা। পরে ছাগলের মালিকের নেতৃত্বে সবজিক্ষেতের মালিককে বেধড়ক মারধর করা হলে তার মৃত্যু হয়। এমন ঘটনা ঘটেছে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালীয়া ইউনিয়নে।

নিহত সবজিক্ষেতের মালিক আজিজুর রহমান খান (৩৫) উপজেলার জাঙ্গালীয়া ইউনিয়নের রয়েন গ্রামের মৃত আবুল হাশেম খানের ছেলে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকালে নিহত আজিজুরের স্ত্রী আসমা আক্তার (২৪) বাদী হয়ে ছাগলের মালিক একই গ্রামের মো. আজহার ইসলামের ছেলে মো. মোস্তফাসহ আরও ছয়জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

নিহত ব্যক্তির স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে কালীগঞ্জের জাঙ্গালীয়া ইউনিয়নের রয়েন গ্রামে মোস্তফার একটি ছাগল প্রতিবেশী আজিজুর রহমানের সবজিক্ষেতে ঢুকে কিছু সবজি খেয়ে ফেলে। পরে ধাওয়া দিলে ছাগলটি দৌড়ে আহত হলে বন্ধুদের নিয়ে জবাই করে রাতেই খেয়ে ফেলেন আজিজুর।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আজিজুর তার বাড়ি থেকে বের হন। এ সময় ছাগল খাওয়ার জেরে মোস্তফার সঙ্গে আজিজুরের কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মোস্তফা তার লোকজন নিয়ে আজিজুরকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। পরে তাকে উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আছমা আক্তার বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। হামলাকারী ছয়জনসহ জড়িত বেশ কয়েকজনকে মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত সবাই পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শিহাব খান/এনএ

Link copied