রাতের আঁধারে সরকারি জমি দখল করলেন আ.লীগ নেতা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ফরিদপুর

১৭ এপ্রিল ২০২১, ২০:৫৭

রাতের আঁধারে সরকারি জমি দখল করলেন আ.লীগ নেতা

সরকারি জমি চারপাশে বাঁশ দিয়ে ঘিরে দখল করা হয়েছে

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে রাতের আঁধারে সরকারি জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। ওই আওয়ামী লীগ নেতার নাম মো. মিজানুর রহমান। তিনি উপজেলার রুপাপাত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সালথার নবকাম পল্লী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রভাষক। 

এ ঘটনায় শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকালে উপজেলার কালিনগর গ্রামের বাসিন্দা এমদাদুল হক মিলনসহ ৯ জনের স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ বোয়ালমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাতে বোয়ালমারী উপজেলার রূপাপাত ইউনিয়নের কালিনগর বাজারের কুমার নদীর পাড়ে সরকারি ১ নম্বর খাস জমি ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১০ শতাংশ জমি মো. মিজানুর রহমান ও তার সহযোগিরা রাতের আঁধারে চারপাশে বাঁশ দিয়ে ঘিরে দখল করে। দখলকৃত জমির আনুমানিক বাজার মূল্য ৩০ লাখ টাকা।

অভিযুক্ত রূপাপাত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান বলেন, এই জমির সামনে আমার জমি। পেছনের জমি গর্ত ছিল। নদী কাটার সময় আমি টাকা-পয়সা খরচ করে ভরাট করেছি। তাছাড়া জমিটা আমার দখলে রয়েছে। জমিটার লিজ নেওয়াসহ ডিসিআরও রয়েছে আমার। 

বোয়ালমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঝোটন চন্দ বলেন, সরকারি জমি দখলের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে রুপাপাত ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাকে সরেজমিনে গিয়ে জায়গা পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বি কে সিকদার সজল/আরএআর

Link copied