তরমুজ খেয়ে অসুস্থ বেরোবি শিক্ষকের মৃত্যু

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

১৪ মে ২০২১, ১৯:৫৩


তরমুজ খেয়ে অসুস্থ বেরোবি শিক্ষকের মৃত্যু

আক্তারুল ইসলাম

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আক্তারুল ইসলাম (৪২) মারা গেছেন। শুক্রবার (১৪ মে) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার ভেলাতৈড় গ্রামে তার নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না… রাজিউন)।  

ঈদের নামাজ আদায় করে বাড়ি ফেরার কিছুক্ষণ পর অসুস্থ হয়ে পড়েন শিক্ষক আক্তারুল ইসলাম। হাসপাতালে নেয়ার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তার অকাল মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজের পর পীরগঞ্জে ভেলাতৈড় জামতলী স্কুল মাঠে মরহুমের নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে স্থানীয় যৈদ্দপীর কবরস্থানে তার দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়।

ওই শিক্ষকের বাবা তৌফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার (১৩ মে) তরমুজ খেয়েছিল আক্তারুল ইসলাম। এরপর থেকে তার পেটের সমস্যা দেখা দেয়। তিনি রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ খেয়ে একটু সুস্থ হন। শুক্রবার ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেন। দুপুরে জুমার নামাজ পড়তে যাওয়ার প্রস্তুতির সময় আবারও অসুস্থতা বোধ করেন আক্তারুল।

পেটের ব্যথা গুরুতর হওয়ার সঙ্গে শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হয়। তার আগেই বাড়িতেই মারা যান আক্তারুল ইসলাম। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আক্তারুল ইসলাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে বিএ ও এমএ করেন। ২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন। ২০০৮ সালে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর এ প্রথম কোনো শিক্ষক মারা গেলেন। 

এদিকে শিক্ষক আক্তারুল ইসলামের মৃত্যুতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির, সাংবাদিক সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন শোক প্রকাশ করেছেন। মরহুমের শোক সন্তত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন।

ফরহাদুজ্জামান ফারুক/এমএএস

Link copied