চাকরি হারিয়ে চুরি করে নিচ্ছিলেন মালিকের ১২ মহিষ

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

২৬ মে ২০২১, ০৯:৩৬ পিএম


চাকরি হারিয়ে চুরি করে নিচ্ছিলেন মালিকের ১২ মহিষ

মালিকের চোখ ফাঁকি দিয়ে ১২টি মহিষ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় রাজশাহীর পুঠিয়ায় গ্রেফতার হয়েছেন জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৮) নামের এক রাখাল। মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুরের দিকে উপজেলার বারইপাড়া এলাকার একটি আমবাগান থেকে তাকে গ্রেফতার করে বাঘা থানা পুলিশ। এ সময় উদ্ধার হয় চুরি যাওয়া ১২টি মহিষ।

এর আগে সোমবার (২৪ মে) দিবাগত রাতে পদ্মার চরের বাথান থেকে মহিষগুলো চুরি হয়ে যায়। তখনই পুলিশে খবর দেন মালিক। এরপর থেকেই মহিষ উদ্ধারে অভিযান শুরু করে বাঘা থানা পুলিশ।

গ্রেফতার জাহাঙ্গীর হোসেন জেলার বাঘা উপজেলার পলাশী ফতেপুর গ্রামের বাসিন্দা। মহিষগুলোর মালিক আশরাফ খামারুর বাড়িও একই গ্রামে।

এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, খবর পাওয়ার পর চুরি যাওয়া মহিষ উদ্ধারে অভিযান শুরু করে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে খবর আসে মহিষগুলো পুঠিয়া উপজেলার বারুইপাড়া এলাকার একটি আমবাগানে চরাচ্ছেন এক রাখাল। পুঠিয়া থানা পুলিশের সহায়তা নিয়ে সেখানে পৌঁছে যায় বাঘা থানা পুলিশ। ঘটনাস্থলেই পাওয়া যায় রাখাল জাহাঙ্গীর হোসেনকে। তাকে চুরির মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

মহিষগুলোর মালিক আশরাফ খামারু ঢাকা পোস্টকে জানান, কয়েক মাস আগে তিনি মহিষগুলো কিনে পদ্মার চরে খামার গড়েন। সেই খামারে রাখাল হিসেবে নিযুক্ত করেন জাহাঙ্গীর হোসেনকে। কিন্তু তিনি কাজে ফাঁকি দিচ্ছিলেন। ফলে তাকে কাজ থেকে বাদ দিয়ে দেন। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি বাথান থেকে মহিষগুলো রাতের আঁধারে বের করে নিয়ে যান।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এনএ

Link copied