নেত্রকোনার সীমান্ত এলাকায় বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নেত্রকোনা

০৩ জুন ২০২১, ০৫:২১ পিএম


নেত্রকোনার সীমান্ত এলাকায় বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে নেত্রকোনায় ভারতীয় সীমান্তবর্তী কলমাকান্দা উপজেলায় বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। এছাড়া সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধ যাতায়াত প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যসহ স্থানীয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) দুপুরে নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক ও ম্যাজিস্ট্রেট কাজি মো. আব্দুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে বুধবার (২ জুন) বিকেলে জরুরি এক অনলাইন সভার আয়োজন করা হয়। সভায় জেলার ভারতীয় সীমান্ত এলাকায় বিজিবি নজরদারি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তিনি বলেন, সীমান্ত এলাকায় বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি ছাড়াও ভারত থেকে আসা ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণ, প্রয়োজনে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণ, করোনা প্রতিরোধে ব্যাপক প্রচারণা, মাইকিং, মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণ, কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন, যানবাহনে সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনসহ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়সমূহ আলোচনা করা হয়। 

সভায় জেলা প্রশাসক কাজি মো. আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে অংশ নেন সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ সেলিম মিয়া, নেত্রকোনা বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এএসএম জাকারিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফখরুজ্জামান জুয়েল, কলমাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহেল রানা প্রমুখ।

নেত্রকোনা বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এএসএম জাকারিয়া বলেন, রোববার অনলাইন সভার পর থেকেই সীমান্ত এলাকায় বিজিবির নজরদারি আরও বৃদ্ধি করা হয়েছে। নেত্রকোনায় করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সীমান্ত এলাকায় সব সময়ই সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বিজিবি।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ সেলিম মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, নেত্রকোনায় তুলনামূলকভাবে করোনা সংক্রমণের হার অনেকটাই কম। এ পর্যন্ত নেত্রকোনায় মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১৬৯ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১০৩৯ জন এবং মারা গেছেন ২১ জন।

তিনি বলেন, তবে সম্প্রতি ভারতীয় সীমান্তবর্তী কলমাকান্দা উপজেলায় করোনা সংক্রমণ কিছুটা বেড়ে গেছে। এ উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪ জন এবং মারা গেছেন ২ জন। তবে আক্রান্তদের মধ্যে ৪০ জনই সুস্থ হয়ে গেছেন।

জিয়াউর রহমান/এমএসআর

Link copied