ঠাকুরগাঁও‌য়ে ৪ ঘণ্টার ব্যবধা‌নে ক‌রোনায় বাবা-ছে‌লের মৃত্যু

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও

০২ জুলাই ২০২১, ০১:৩০ পিএম


ঠাকুরগাঁও‌য়ে ৪ ঘণ্টার ব্যবধা‌নে ক‌রোনায় বাবা-ছে‌লের মৃত্যু

ঠাকুরগাঁওয়ে চার ঘণ্টার ব্যবধানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইয়াকুব আলী (৭০) ও তার ছেলে আজগর আলী (৫৫) মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (০১ জুলাই) রাতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে মারা যান ইয়াকুব আলী। আর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আজগর আলী।

বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন হরিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান মুকুল। তিনি আজগর আলীর খালাতো ভাই। 

আজগর আলী ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার দনগাঁওয়ের গ্রামের বাসিন্দা। তিনি হরিপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও স্থানীয় শীতলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। 

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, গত ২৫ জুন ইয়াকুব আলী জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে যায়। এ সময় তাকে করোনা পরীক্ষার পরামর্শ দেয় চিকিৎসক। পরে পরিবারের লোকজন তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে ভর্তি করায়। সেখানেই তার করোনা পজিটিভ আসে। 

পাঁচ দিন পর ইয়াকুব আলীর ছেলে আজগর আলীর নমুনা হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দেওয়া হয়। এ সময় তারও করোনা শনাক্ত হয়। ওদিন রাতেই তাকে দিনাজপুর আব্দুর রহিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হরিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান মুকুল ঢাকা পোস্টকে বলেন, করোনা পজিটিভ হলে প্রথমে খালুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর পাঁচ দিন পর আবারো করোনা পজিটিভ হয় খালাতো ভাইয়ের। তাকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বেশ কয়েক দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর গতকাল রাতে খালু কিছুটা সুস্থ হওয়ায় তাকে বাসায় নিয়ে আসা হয়। 

কিন্তু বাসায় ফিরেই হঠাৎ মারা যায় তিনি। এর চার ঘণ্টা পর খবর আসে খালাতো ভাই আজগর আলীর অবস্থা ভালো না। তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়েছে। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় তিনি।

এদিকে ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৫০৯ জনের। যার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪৫ জন এবং মারা গেছেন ৮৩ জন। 

নাহিদ রেজা/এসপি

Link copied