রূপগঞ্জে পৌঁছেছে ভারতের ২০০ টন অক্সিজেন

Dhaka Post Desk

উপজেলা প্রতিনিধি

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)

২৭ জুলাই ২০২১, ১২:৪৮ এএম


রূপগঞ্জে পৌঁছেছে ভারতের ২০০ টন অক্সিজেন

অবশেষে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পৌঁছেছে ভারত থেকে অক্সিজেনবাহী ট্রেনে (ইন্দো-বাংলা অক্সিজেন এক্সপ্রেস) আসা ২০০ মেট্রিকটন অক্সিজেন। সোমবার (২৬ জুলাই) রাত ১০টার মধ্যে পর্যায়ক্রমে ১০টি ট্যাংকলরির মাধ্যমে এসব অক্সিজেন রূপগঞ্জের দুপ্তারা এলাকায় অবস্থিত অক্সিজেন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড প্ল্যান্টে এসে পৌঁছায়। এদিকে ওই অক্সিজেন প্ল্যান্টে এসব অক্সিজেন খালাসের পর মান নিয়ন্ত্রণ পরীক্ষা শেষে বিভিন্ন হাসপাতালেও পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

ওই প্ল্যান্টে অক্সিজেন সংরক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লিন্ডে বাংলাদেশের ম্যানেজার সামসুল আলম সরকার।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (২৪ জুলাই) সকাল ১০টায় ভারতের ঝাড়খণ্ড প্রদেশের জামশেদপুর টাটানগর থেকে ১০টি কন্টেইনারে তরল অক্সিজেন নিয়ে ইন্দো-বাংলা নামে অক্সিজেনবাহী ট্রেনটি বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হয়। ওই দিন রাত ১০টার দিকে বেনাপোল বন্দরে ট্রেনটি পৌঁছায়। পরে সেটি সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছায়। ওই স্টেশন থেকে অক্সিজেন খালাসের পর রোববার (২৫ জুলাই) বিকেল থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত সাতটি ট্যাংকলরিতে ১৪০ মেট্রিক টন অক্সিজেন নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অবস্থিত লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড প্ল্যান্টে এসে পৌঁছায়। সর্বশেষ সোমবার রাত ১০টার মধ্যে বাকি তিনটি ট্যাংকলরিতে আসে ৬০ মেট্রিকটন অক্সিজেন।

জানা গেছে, প্রতি সপ্তাহে ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেন নিয়ে দুই থেকে তিনটি ট্রেন বাংলাদেশে আসতে পারে।

উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো ভারতীয় রেলওয়ের ইন্দো-বাংলা ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ ১০টি কন্টেইনারে ২০০ মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন (এলএমও) ভারতের পেট্রোপোল বন্দর থেকে বেনাপোল বন্দর হয়ে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। সেখান থেকে খালাসের পর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আনা হয় এই অক্সিজেন। অক্সিজেন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান লিন্ডে বাংলাদেশ ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের বিপরীতে ১৬ লাখ টাকা রাজস্ব পরিশোধ করেছে। 

বেনাপোল কাস্টম হাউজের কমিশনার মো. আজিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অন্যদিকে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ভারতীয় ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ বাংলাদেশি ট্যাংকারে অক্সিজেন খালি করে আবার ভারতে ফিরে গেছে।

মো. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া/এসএসএইচ

Link copied