ছেলের লাশ দেখে মারা গেলেন মা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

০৭ আগস্ট ২০২১, ০৮:০২ পিএম


ছেলের লাশ দেখে মারা গেলেন মা

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া প্রতিবন্ধী ছেলের মরদেহ দেখে মা সুফিয়া বেগমের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (০৬ আগস্ট) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। পরে মা ও ছেলেকে পারিবারিক কবরস্থানে পাশাপাশি দাফন করা হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মৃতদের স্বজন নান্না মল্লিক। তিনি জানান, উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের সেরাল গ্রামের দুলাল মল্লিকের পরিবারের তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন। তার প্রতিবন্ধী ছেলে মিজান মল্লিক (২৭) ও স্ত্রী সুফিয়া বেগম জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে বাড়িতে ছিলেন। এর মধ্যে শুক্রবার মিজান মল্লিকের অবস্থার অবনতি হলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। স্বজনরা তার মরদেহ রাত ২টার দিকে বাড়িতে নিয়ে আসলে ছেলের লাশ দেখে অসুস্থ হয়ে পড়েন মিজানের মা সুফিয়া বেগম। কিছুক্ষণের মধ্যে তিনিও মৃত্যুবরণ করেন।

শনিবার (০৭ আগস্ট) বাদ জোহর সেরাল গ্রামের নিজ বাড়িতে মা ও ছেলের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এতে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।  

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হাফিজুর রহমান দিপু জানান, শুক্রবার রাতে মিজান মল্লিক নামে এক যুবক জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। তার প্রেসার এবং অক্সিজেন স্যাচুরেশন নিম্নমুখী ছিল। হাসপাতাল থেকে অক্সিজেন দেওয়া হলেও তা স্বাভাবিক হয়নি। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

সৈয়দ মেহেদী হাসান/আরএআর

Link copied