ওবায়দুল কাদেরের অর্থায়নে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সেবা চালু

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নোয়াখালী

২১ আগস্ট ২০২১, ০৪:৩৮ পিএম


ওবায়দুল কাদেরের অর্থায়নে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সেবা চালু

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নিজস্ব অর্থায়নে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ এবং কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উচ্চমাত্রার নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। শনিবার (২১ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

তিনি বলেন, মন্ত্রী মহোদয়ের নিজস্ব অর্থায়নে করোনাসহ অন্য রোগীর জরুরি প্রয়োজনে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে উভয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রতিটিতে ১৫টি করে ৩০ শয্যায় কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতিতে সব থেকে বেশি প্রয়োজন হয় নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহ। তবে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কবিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এতদিন সিলিন্ডারের মাধ্যমে অক্সিজেন সরবরাহ করা হতো।

এতে করে রোগীরা সার্বক্ষণিক অক্সিজেন সেবা থেকে বঞ্চিত হতেন। অক্সিজেন সেবা না পেয়ে অনেক রোগী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এ অবস্থায় কয়েক মাস আগে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা স্থাপনের উদ্যোগ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সে অনুযায়ী হাসপাতালের সব ইউনিটে পাইপলাইন স্থাপনসহ অন্যান্য কাজ শুরু হয়। এমন পরিস্থিতিতে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং করোনা ইউনিটে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে মেনিপোল পদ্ধতিতে পাইপলাইনে অক্সিজেন সরবরাহ করা হচ্ছে। ফলে রোগীরা এখন সহজেই অক্সিজেন নিতে পারছেন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সেলিম ঢাকা পোস্টকে বলেন, করোনার আগেও আমরা রোগীদের পর্যাপ্ত অক্সিজেন সেবা দিতে পারতাম না। কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সিস্টেম চালু হওয়ায় হাসপাতালে রোগীদের সেবা দেওয়া সহজ হবে।

কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বিদ্যুৎ কুমার বিশ্বাস ঢাকা পোস্টকে বলেন, সাময়িক সময়ের জন্য ৪০টি অক্সিজেন সিলিন্ডারকে সংযুক্ত করে সেন্ট্রাল পাইপলাইনের মাধ্যমে আইসোলেশন ইউনিটে নিরবচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহ করা হচ্ছে।

কবিরহাট পৌরসভার মেয়র জহিরুল হক রায়হান ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমাদের উপজেলায় অক্সিজেন সেবার অভাবে অনেক রোগী মারা যেতেন। মন্ত্রী মহোদয় নিজস্ব অর্থায়নে এই সেবাটি চালু করায় কবিরহাটবাসীর পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, কোম্পানীগঞ্জবাসী করোনা মহামারির শুরু থেকে কেন্দ্রীয় অক্সিজেনসহ আইসিউ সেবা চালুর জন্য মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট সহযোগিতা চেয়েছিলাম। তিনি সেই পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫ শয্যার কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সেবা ও  ডায়াবেটিকক হাসপাতালে ৪ বেডের আইসিউ সেবা স্থাপন করেছেন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান ঢাকা পোস্টকে বলেন, উচ্চমাত্রার কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থার মাধ্যমে উভয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাসহ অন্যান্য রোগীর জরুরি অক্সিজেন সেবা প্রদান শুরু হয়েছে। ফলে রোগীরা এখন সহজেই প্রয়োজনমতো অক্সিজেন নিতে পারছেন।

হাসিব আল আমিন/এমএসআর

Link copied