এবার রাজশাহীতে শামুকখোল ছানা হত্যায় মামলা

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩৩ এএম


এবার রাজশাহীতে শামুকখোল ছানা হত্যায় মামলা

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) এলাকায় শতাধিক শামুকখোল ছানা হত্যার ঘটনায় অবশেষে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাজশাহীর চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ মামলা হয়। মামলাটির বাদী বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বন্য প্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবির।

মামলার তথ্য গোপন থাকলেও শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মামলার বাদী গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে বিষয়টি স্বীকার করেন। মামলায় রামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিবাদী করা হয়েছে। তবে কারও নাম উল্লেখ নেই।

বন্য প্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবির ঢাকা পোস্টকে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী মামলা করা হয়েছে। তবে আদালত মামলাটি গ্রহণ করলেও কোনো আদেশ দেননি। আগামী রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) আদেশ হতে পারে।

মামলার আরজিতে বলা হয়েছে, রামেক হাসপাতালে ৮০টি বন্য পাখি হত্যা ও আবাসস্থল ধ্বংসে আনুমানিক ক্ষতির পরিমাণ এক কোটি টাকা। আর পাখিগুলো হত্যায় পরিবেশের ক্ষতি হয়েছে আরও দুই কোটি টাকার।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, বাদী ৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে খবর পান, রামেক হাসপাতালের প্রশাসনিক ভবনের সামনের গাছগুলোতে বাসা বানিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাসরত পাখির বাসা কে বা কারা নষ্ট করছে এবং পাখির ছানা হত্যা করছে। খবর পেয়েই তিনি ঘটনাস্থলে যান।

তিনি ঘটনাস্থলে ফেলে রাখা গাছের গুঁড়ি এবং ড্রেন নির্মাণের কাজ দেখতে পান। লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারেন, গাছ কাটার ফলে পাখির বাচ্চাগুলো মাটিতে পড়ে। তখন স্থানীয় লোকজন, শ্রমিক এবং রোগীর দর্শনার্থীরা আনুমানিক ৬০ থেকে ৮০টি পাখির বাচ্চা জবাই করে বাড়ি নিয়ে যান।

পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাখি হত্যার ছবি ও ভিডিও প্রকাশ হয়। বন্য পাখি হত্যা করা, মাংস, দেহের অংশ সংগ্রহ করা, শিকার ও এ জাতীয় অপরাধ সংঘটনে সহায়তা করা, প্ররোচনা প্রদান ইত্যাদি বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন-২০১২) অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

রামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পাখির বাসস্থান ধ্বংস ও পাখিছানা হত্যা করে প্রচলিত ওই আইন অনুসারে অপরাধ করেছে। ন্যায়বিচারের স্বার্থে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে এই পিওআর মামলাটি করা হয়েছে।

জানতে চাইলে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার মো. শামীম ইয়াজদানী ঢাকা পোস্টকে বলেন, আপনাদের কাছেই প্রথম মামলার কথা শুনলাম। বিষয়টি আমার জানা নেই।

উল্লেখ্য, এর আগে ৬ সেপ্টেম্বর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল এলাকায় শামুকখোল ছানা হত্যায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেন রাজশাহীর পরিবেশবাদীরা। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের জেলা সভাপতি ও রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খানের সভাপতিত্বে সেদিন দুপুরের দিকে নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

তখন বক্তারা বলেছিলেন, পাখি ও গাছ নিধন জীববৈচিত্র্যের ওপর একটি বড় ধরনের অশনীসংকেত। এমন ন্যক্কারজনক ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। অন্যথায় লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি দেওয়া হবে।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এনএ

Link copied