নামাজের পর তিন ছাত্রী নিখোঁজ, চার শিক্ষক আটক

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, জামালপুর

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৪ পিএম


নামাজের পর তিন ছাত্রী নিখোঁজ, চার শিক্ষক আটক

নিখোঁজ তিন মাদরাসাছাত্রী

অডিও শুনুন

জামালপুরের ইসলামপুরে তিন মাদরাসাছাত্রী নিখোঁজ হয়েছে। নিখোঁজ তিনজনই দারুত তাক্কওয়া মহিলা কওমি মাদরাসার দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজন শিক্ষককে আটকসহ মাদরাসার পাঠদান আপাতত বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা হচ্ছে- উপজেলার গাইবান্ধা ইউনিয়নের পোড়ারচর সরদারপাড়া গ্রামের মাফেজ শেখের মেয়ে মীম আক্তার (৯), গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভুকুড়া মোল্লাপাড়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের মেয়ে মনিরা খাতুন (১১) ও সুরুজ্জামানের মেয়ে সূর্য ভানু (১০)।

গত রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) ভোররাত থেকে তারা নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় পরদিন সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মাদরাসার মুহতামিম (প্রধান শিক্ষক) মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান ইসলামপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানা যায়, উপজেলার গোয়ালেরচর ইউনিয়নের মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ বীর উত্তম সেতুর পূর্ব পাড়ের বাংলাবাজার এলাকায় দারুত তাক্বওয়া মহিলা কওমি মাদরাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীরা শনিবার রাতে মাদরাসার আবাসিক কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। রোববার ভোররাতে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। অন্য ছাত্রীদের মতোই ওই তিন শিশুও নামাজের প্রস্তুতি নেয়। নামাজের পর তাদের আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

ইসলামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহমুদুল হাসান মোড়ল বলেন, দারুত তাক্বওয়া মহিলা কওমি মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান নিখোঁজের পরদিন থানায় জিডি করেন। খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

নিখোঁজ মীম আক্তারের মা হাসিনা বেগম জানান, মেয়েকে তিনি ১৫ দিন আগে মাদরাসায় রেখে আসেন। রোববার দুপুরে মাদরাসার হুজুরের মাধ্যমে জানতে পারেন যে মেয়ে নিখোঁজ হয়েছে।

ইসলামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাজেদুর রহমান বলেন, নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের সন্ধান পেতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান, রাবেয়া আক্তার, শুকরিয়া আক্তার ও ইলিয়াস হোসেনকে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় মাদরাসার পাঠদান আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

আরএআর

Link copied