জামা কেনার কথা বলে অপহরণ, পুলিশের হাতে ধরা

Dhaka Post Desk

উপজেলা প্রতিনিধি, সাভার (ঢাকা)

১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২৬ পিএম


জামা কেনার কথা বলে অপহরণ, পুলিশের হাতে ধরা

কাপড় কেনার ছলে অপহরণের প্রায় ১৮ ঘণ্টা পর শিশু সুমনকে (৩) চলন্ত বাস থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় অপহরণকারী আকাশি বেগমকে (৩০) আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ভোরে সিরাজগঞ্জ থেকে অপহৃত শিশু ও গ্রেফতার নারীকে আশুলিয়া থানায় আনা হয়েছে। একই সঙ্গে অপহৃত শিশুকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম।

অপহৃত সুমন শরীয়তপুর জেলা সদরের মিঠাপুর গ্রামের নাহিদের ছেলে। সে তার রিকশাচালক বাবা ও মায়ের সঙ্গে আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকার শাহ আলমের বাড়িতে ভাড়া থাকত। আর আকাশি বেগম দিনাজপুর জেলার কোতোয়ালি থানার ফুলতলা গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে। তিনি কয়েক দিন আগে নাহিদের পাশের কক্ষ ভাড়া নেন।

পুলিশ জানায়, আকাশি বেগম মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে অপর ভাড়াটে বিনা ও তার মেয়ে সুমাকে জামা কিনে দেওয়ার কথা বলে আশুলিয়ার নবীনগরে যান। এ সময় সুমনকে সঙ্গে নিয়ে যেতে চাইলে তার বাবা নাহিদ সরল বিশ্বাসে ছেলেকে যেতে দেন। তারা নবীনগর থেকে বাইপাইলে জামাকাপড় কেনার জন্য যান। এ সময় টাকা আর মোবাইল বাসায় ভুলে রেখে আসার কথা বলে কৌশলে বীনাকে টাকা আনতে বাসায় পাঠান আকাশি।

পরে বীনার মেয়ে সুমাকে রিকশাযোগে বাসায় পাঠিয়ে দেন আকাশি এবং সুমনকে অপহরণ করেছেন বলে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। পরে থানায় খবর দিলে সিরাজগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তা চলন্ত বাস থেকে সুমনকে উদ্ধার করে আকাশিকে গ্রেফতার করা হয়।

আশুলিয়া থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, এ ঘটনায় সুমনের বাবা নাহিদ বাদী হয়ে মামলা করেছেন। দুপুরে আসামি আকাশিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মাহিদুল মাহিদ/এনএ

Link copied