সোনারগাঁয়ে আবারও বিক্ষোভ শ্রমিকদের

Dhaka Post Desk

উপজেলা প্রতিনিধি, সোনারগাঁ, (নারায়ণগঞ্জ)

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৪০ পিএম


সোনারগাঁয়ে আবারও বিক্ষোভ শ্রমিকদের

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে আবারও বিক্ষিপ্তভাবে কয়েক দফা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করেছেন ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গার্মেন্টসের শ্রমিকরা।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে চাঁদমহল সিনেমা হলের সামনে শ্রমিকরা সড়কে অবস্থান নিয়ে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধের চেষ্টা করেন। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশের সদস্যরা তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেন।

জানা যায়, একই দাবিতে গত বুধবার কাঁচপুর এলাকায় বিকেল থেকে চলা অবরোধ সরাতে গেলে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন শ্রমিকরা।

বিক্ষোভে রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে পুলিশ। সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত চলে এ ঘটনা। এ ঘটনায় সজীব নামে এক পুলিশ সদস্যকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পাঠানো হয়েছে।

এ সময় শ্রমিকদের ছোড়া ইটের আঘাতে সোনারগাঁ থানার ওসিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য ও প্রায় ৩৫ শ্রমিক আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ৬০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়েছে।

গতকাল অবরোধে অংশ নেওয়া শ্রমিক রায়হান জানান, লকডাউন শুরুর থেকেই বেতন বকেয়া রয়েছে। গতকাল সকালে মালিকপক্ষ থেকে তিন মাসের বকেয়া বেতন দেওয়ার কথা বলেছিল। তাই সকাল থেকে বকেয়া বেতনের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন শ্রমিকরা।

বিকেল পর্যন্ত মালিকপক্ষের কোনো সাড়া না পেয়ে রাস্তা অবরোধ শুরু করেন তারা। তাদের অবরোধে পুলিশ মালিকদের পক্ষ নিয়ে লাঠিচার্জ শুরু করলে তারা প্রতিরোধের চেষ্টা করে। এ সময় তাদের ওপর কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশ-৪ এর পুলিশ সুপার আইনুল হক বলেন, সকালে তারা বিক্ষিপ্তভাবে সড়কে নেমে অবরোধের চেষ্টা করেন। আমরা তাদের সরিয়ে দিয়েছি। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তারা বিভিন্নভাবে জড়ো হওয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি আরও জানান, মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা আগামী বুধবার পাওনা পরিশোধ করবে বলে সময় দিয়েছে। শ্রমিকরা সেটা না মেনে সড়কে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করছে।

শেখ-ফরিদ/এমএসআর

Link copied