দোকানে বসে গল্প করছিলেন, হঠাৎ বজ্রপাতে প্রাণ গেল যুবকের

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, পঞ্চগড়

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩২ এএম


দোকানে বসে গল্প করছিলেন, হঠাৎ বজ্রপাতে প্রাণ গেল যুবকের

পঞ্চগড়ে বজ্রপাতে রণজিৎ চন্দ্র বর্মণ (২৯) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও চারজন। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে জেলার আটোয়ারী উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের রসেয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

রণজিৎ চন্দ্র বর্মণ ওই এলাকার ভুজেন চন্দ্র বর্মণের ছেলে। আহতরা হলেন- একই এলাকার কালকাটু বর্মণের ছেলে গণেশ চন্দ্র বর্মণ (৪৫), কানাদুরু চন্দ্রের ছেলে কুলিন চন্দ্র (৪৫), বিরেন্দ্রনাথের ছেলে পরিতোষ (৩২) এবং প্রেমোহরি বর্মণের ছেলে ভবেশ বর্মণ (৫৫)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে রসেয়া জামুরিবাড়ি দূর্গামন্ডম এলাকায় রণজিৎসহ তার চার প্রতিবেশী একটি দোকানে আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাত হয়। বজ্রাঘাতে আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যায় তারা। স্থানীয়রা তাদের চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দ্রুত উদ্ধার করে আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। 

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হুমায়ুন কবীর রঞ্জিতকে ইসিজি পরীক্ষা করানোর পরামর্শ দেন। ইসিজি পরীক্ষার ফলাফল দেখে রঞ্জিতকে মৃত ঘোষণা করেন তিনি। আহতদের মধ্যে ভবেশ চন্দ্র রায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আহত গণেশ, কুলিন এবং পরিতোষ আটোয়ারি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আটোয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল উদ্দিন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

রনি মিয়াজী/এসপি

Link copied