মাকে হত্যার দায়ে ছেলের যাবজ্জীবন

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, গাজীপুর

০৭ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪১ পিএম


মাকে হত্যার দায়ে ছেলের যাবজ্জীবন

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে মাকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ছেলেকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মমতাজ বেগম এ রায় দেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মো. শাহজাহান খান ওরফে সাজু (৪৬)। তিনি গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানাধীন কাঁচারস এলাকার মো. আমছের আলী খানের ছেলে। 

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে গাজীপুর আদালতের পরিদর্শক মো. মনিরুজ্জামান জানান, আমছের আলী ও আনোয়ারা বেগম দম্পতির একমাত্র ছেলে সাজু এবং একমাত্র মেয়ে মনোয়ারা বেগম। মনোয়ারা বেগম মারা যাওয়ার পর থেকে সাজু জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তার বাবা-মাকে হুমকিসহ নানাভাবে নির্যাতন করতেন। একপর্যায়ে ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ সাজু বাড়ির পাশে তাদের বাঁশ ঝাড় থেকে বাঁশ কাটতে যান। এ সময় তার বাবা নিষেধ করলে শাহজাহান খান তাকে গালিগালাজ শুরু করেন। পরে মা আনোয়ারা বেগম স্বামীকে রক্ষায় এগিয়ে গেলে সাজু দা দিয়ে তার গলায় কোপ দেন। এতে ঘটনাস্থলেই আনোয়ারা বেগমের মৃত্যু হয়। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে সাজু দৌড়ে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আনোয়ারার মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই (শাহজাহানের মামা) মো. হাসেম বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় মামলা করেন। পরবর্তীতে সাজু একই বছরের ২ মে আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে সাজু আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তদন্ত ও সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে ৩০২ ধারায় অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট শাহজাহানের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। ওই বছরের ১ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। মোট ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি সাজুকে দোষী সাব্যস্ত করে বৃহস্পতিবার মামলার রায় দেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মমতাজ বেগম। রায় ঘোষণাকালে আসামি শাহজাহান আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

প্রসিকিউশনের পক্ষে পিপি অ্যাডভোকেট মো. হারিছ উদ্দিন আহম্মদ ও আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট মো. ইসমাইল হোসেন খান মামলাটি পরিচালনা করেন ।  

শিহাব খান/আরএআর

Link copied