বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নিয়ে এবার আরেক মেয়রের আপত্তিকর মন্তব্য ভাইরাল

Dhaka Post Desk

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

২৩ নভেম্বর ২০২১, ০৯:২৯ পিএম


বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নিয়ে এবার আরেক মেয়রের আপত্তিকর মন্তব্য ভাইরাল

আব্বাস আলী

এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নিয়ে রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর একটি অডিও রেকর্ড ভাইরাল হয়েছে। ১ মিনিট ৫১ সেকেন্ডের অডিও ক্লিপটি নিয়ে রাজশাহীতে বইছে সমালোচনার ঝড়।

এতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল বানালে ‘পাপ হবে’ এমন কথাও বলতে শোনা গেছে মেয়র আব্বাস আলীকে। সোমবার (২২ নভেম্বর) রাত থেকে অডিও ক্লিপটি নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। 

এর আগে গত শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। এর রেশ কাটতে না কাটতেই রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর একটি অডিও রেকর্ড ভাইরাল হয়েছে। 

অডিও ক্লিপটিতে মেয়র আব্বাস আলী বলছেন, ‘হাইওয়েটাকে আমরা ডিজাইন করতে দিয়েছি। আমাদের যে অংশটা হাইওয়ে। সিটি গেট থেকে আমার অংশ। টোটালই একটা ফার্মকে দিয়েছি যে, তারা একদম বিদেশি স্টাইলে সাজায়ে দিবে ফুটপাত, সাইকেল লেন টোটাল আমার অংশটা।’ 

কথার এই পর্যায়ে পাশে থেকে কেউ একজন বলে ওঠেন, ‘দুই পারে দুইটা গেট করার কথা আছে।’

এর প্রেক্ষিতে মেয়র বলেন, ‘একটু থাইমি গেছি গেটটা নিয়ে, একটু চেঞ্জ করতে হচ্ছে যে ম্যুরালটা দিছে বঙ্গবন্ধুর, এটা ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক সঠিক না। এ জন্য আমি ওকে থুব না। সব করব, যা কিছু আছে, খালি শেষ মাথাতে যেটা মাইন্ড করবে না ওড্যাই। আমি দেখতে পাছি, আমাকে যেভাবে বুঝ্যালো আমি দেখতে পাছি যে ম্যুরালটি ঠিক হবে না দিলে। আমার পাপ হবে। তো কেন দিব? দিব না, আমি তো কানা লোক না আমাক বুঝাই দিছে।’

আব্বাস আলী বলেন, ‘যেভাবে বুঝাইছে তাতে আমার মুনে হইছে যে, ম্যুরালটা হইলে আমার ভুল হয়্যা যাবে। এ জন্য চেঞ্জ করছি। এই খবরটাও যদি আবার যায় তো আবার রাজনীতি শুরু হয়ে যাবে। ওই বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল দিতে চাইয়া দিচ্ছে না। বঙ্গবন্ধুক খুশি করতে যাইয়া জায়গা নারাজ করব নাকি? এইডা লিয়েও রাজনীতি করবে কিন্তু আমি সিওর। তবে করলে কিছু করার নাই। মানুষেক সন্তুষ্ট করতে যাইয়া আল্লাক অসন্তুষ্ট করা যাবে না তো।’

তবে বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দিনভর মুখ না খুললেও সন্ধ্যা ৭টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডিতে বিবৃতি দেন আব্বাস আলী। তাতে ভাইরাল হওয়া অডিও প্রসঙ্গে মেয়র আব্বাস আলী বলেন, অডিওটি সবাই মনোযোগ দিয়ে শুনুন। আপনারা বুঝতে পারবেন অডিওটি এডিট করে তৈরি করা হয়েছে। আমি কখনও কারও সামনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ গেট নির্মাণ করা হবে না কিংবা কেউ ম্যুরাল নির্মাণ করলে বাধা দেওয়া হবে এ রকম কথা বলিনি।

তিনি উল্লেখ করেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে লালন করি এবং মমতাময়ী জননী বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার দেখানো পথে একজন সাধারণ কর্মী হয়ে পৌরসভার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি।

মেয়র আব্বাস আলী বলেন, গত ২৯ মে আমার ফেসবুক আইডি থেকে কাটাখালী পৌরসভার প্রবেশদ্বারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ গেট নির্মাণ করা হবে মর্মে আপলোড দিয়েছিলাম। গেট নির্মাণের জন্য সকল প্রস্তুতি চলছিল। কিন্তু ঢাকা টু রাজশাহী মহাসড়ক দুই লেন থেকে চার লেনে উন্নীত করার কাজ চলমান থাকায় গেটটি নির্মাণ সাময়িকভাবে বন্ধ আছে। চার লেন রাস্তা নির্মাণের জন্য মহা সড়কের দুই ধারে কতটুকু জায়গা বাড়ছে সেটা নিশ্চিত হওয়ার পরে আশা করছি আগামী বছরের জানুয়ারি অথবা ফেব্রুয়ারিতে পুনরায় গেট নির্মাণের প্রস্তুতি শুরু করতে পারব।

তিনি দাবি করেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ গেট নির্মাণের পরিকল্পনার কথা জানানোর পর থেকে একটি অশুভ শক্তি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ যেন গেট নির্মাণ করতে না পারি এ ব্যাপারে ষড়যন্ত্র শুরু করে।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার জানান, মেয়র আব্বাস আলীর কথোপকথনের অডিও রেকর্ড তিনি শুনেছেন। বিষয়টি নিয়ে সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিকেও বিষয়টি জানানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটি এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেবে।

মেয়র আব্বাস আলী কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে প্রথমবার মেয়র নির্বাচিত হন। ২০২০ সালের ডিসেম্বরেও তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে মেয়র নির্বাচিত হন।

 ফেরদৌস সিদ্দিকী/আরএআর

Link copied