‘ওপর দিয়ে নৌকা চলবে, ভেতর দিয়ে জুয়েলের কাজ করবা’

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর

২৭ নভেম্বর ২০২১, ০২:১১ পিএম


‘ওপর দিয়ে নৌকা চলবে, ভেতর দিয়ে জুয়েলের কাজ করবা’

‘ওপর দিয়ে নৌকা চলবে, ভেতর দিয়ে জুয়েলের সঙ্গে কাজ করবা। রাতে বাড়িতে এসো, তোমার সাথে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কথা বলব। ৯ তারিখ বর্ধিত সভা দলীয় নেতাদের চিঠি দেওয়া হবে। তোমার যেহেতু পদ-পদবি নেই, তাই তোমাকে চিঠি দেওয়া হবে না। তোমাকে বহিষ্কারের সুযোগ নেই। তবে বেলাল (রামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহমেদ) ভাইকে দিয়ে তোমার নমিনেশন উইড্রো করাতে চাইবে। এ জন্য ১২ তারিখের আগ পর্যন্ত মোবাইল বন্ধ রাখবে। নতুন নম্বর ব্যবহার করবে।’

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নৌকার প্রার্থীকে হারাতে আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চুর এমন কথোপকথনের একটি ভিডিও রেকর্ড ফাঁস হয়েছে। বাচ্চু উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান।

সম্প্রতি একটি প্রাইভেট কারের মধ্যে দুজনের কথোপকথন হচ্ছিল। এ সময় বাচ্চুর মোবাইলফোনে মহসিন নামের এক কর্মী কল দেন। তখন বাচ্চু তাকে নৌকার পরাজয় নিশ্চিত করতে এবং উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী জুয়েলকে (অটোরিকশা) জেতাতে দিকনির্দেশনা দেন।

বাচ্চু ও জুয়েলের কথোপকথনের ৩৪ মিনিটের একটি গোপন ভিডিও শনিবার (২৭ নভেম্বর) প্রতিবেদকের হাতে এসেছে। তবে ভিডিও দেখে বোঝা যায় তা জুয়েল নিজেই করেছেন এবং তা স্বীকারও করেছেন।

ভিডিওর শেষের দিকে জুয়েলকে পরামর্শ দিয়ে বাচ্চু বলেন, ‌‘এজেন্টদেরকে শপথ করাবে। এটি তোমাদের ও আমাদের চ্যালেঞ্জ। জীবন চলে যাইব। ভোট শুরু থেকে গণনা পর্যন্ত কেন্দ্রে থাকতে হবে। প্রয়োজনের তাগিদে ভোট বন্ধ হয়ে যাবে। বাট আপস করা যাবে না। এবার ১০ ইউনিয়নে একযোগে নির্বাচন। বিগত দিনের মতো এবার বাচ্চু (নিজেই) পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেট কিংবা লোকজন আনবে না।’

বাচ্চু আরও বলেন, প্রশাসনের প্রেশার হাই রাখতে হবে। ডিপে কাজ চলবে। কেন্দ্রভিত্তিক মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলতে হবে। ২০ নভেম্বর কেন্দ্র কমিটি গঠন করতে হবে। যাদের তুমি মেম্বার বানাতে চাও তাদেরকে কৌশলে খরচ দেবে। তিনটি কেন্দ্রে প্রশাসনের কাছে অবজেকশন দিতে হবে। কয়েকজন মেম্বার প্রার্থীর সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের বলেছি ওপর দিয়ে নৌকার জন্য কাজ করবে। আর ডিপে যেন তোমার (জুয়েল) জন্য করে।

জাহিদ হোসেন জুয়েল উপজেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য। তিনি রামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর মেয়র বেলাল আহমেদের ভাতিজা। এ বিষয়ে তিনি বলেন, দেওয়ান বাচ্চু এখন আবার আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে। তার আত্মীয় দেলোয়ারকে (চশমা) চেয়ারম্যান বানাতে কাজ করছেন।

তবে কথোপকথন সম্পর্কে দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চু দাবি করেন কথাগুলো মনোনয়ন দেওয়ার আগে হতে পারে। আমি কোনো ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত না। আমি ভাদুরে নৌকার ভোট করছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিক মাহমুদ পিন্টু বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে আমি এলাকায় রয়েছি। বাচ্চু নৌকার বিরুদ্ধে কাজ করছে, তা আমি জানি না। কেউ জানায়ওনি। যদি এ রকম কিছু হয়, সেই বিষয়ে উপজেলা কমিটির সবার সঙ্গে কথা বলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, আগামীকাল ২৮ নভেম্বর ভোলাকোটসহ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। ভোলাকোট ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী জামান পাটওয়ারী দুলাল।

হাসান মাহমুদ শাকিল/এনএ

Link copied