মামার ভোট দিতে গিয়ে ভাগনে ধরা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নেত্রকোনা

২৮ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫০ পিএম


মামার ভোট দিতে গিয়ে ভাগনে ধরা

নেত্রকোনায় তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে মামা এরশাদ মিয়ার পরিচয়ে ভোট দিতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন ভাগনে সারাফত মিয়া (১৮)। রোববার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে জেলার কলমাকান্দা উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের ইয়ারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

আটক সারাফত ইয়ারপুর গ্রামের লিটন মিয়ার ছেলে। তিনি গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন বলে জানা গেছে।

ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও স্থানীয় নাজিরপুর পল্লী জাগরণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান ঢাকা পোস্টকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সারাফত মিয়া রোববার পৌনে ১২টার দিকে ওই ভোটকেন্দ্রের ১ নম্বর কক্ষে গিয়ে নিজেকে এরশাদ মিয়া বলে পরিচয় দেয় ওই যুবক। এ সময় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টরা তাকে চ্যালেঞ্জ করে। যাচাই-বাছাই করে দেখা যায়, সে আসলে এরশাদ না, তার প্রকৃত নাম সারাফত। তার মামা এরশাদ মিয়া এলাকায় না থাকায় সে জাল ভোট দিতে যায়। এ সময় ভোটকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা বিষয়টি প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে জানায়। তিনি কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের ডেকে তাকে আটকের নির্দেশ দেন। 

ইয়ারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, এ কেন্দ্রের চার কক্ষে ১ হাজার ৪৫০ জন ভোটার তাদের ভোটারাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে বেলা পৌনে ১২টা নাগাদ ৫২৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। 

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার তিন উপজেলার ২৫ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১০৮ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৯২১ ও সংরক্ষিত পদে ২৯৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ তিন উপজেলায় মোট ভোটার রয়েছেন ৫ লাখ ৯৬ হাজার ২২৫ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ২ লাখ ৯২ হাজার ৬০ জন এবং পুরুষ ভোটার ৩ লাখ ৪ হাজার ১৫৯ জন। ২৫ ইউনিয়নে ২৪২ কেন্দ্রের ১৬৬৭ কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

জিয়াউর রহমান/এসপি

Link copied