মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা দেয়নি পরিবার, ডোবায় শিশুর লাশ

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নরসিংদী

০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০১ পিএম


মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা দেয়নি পরিবার, ডোবায় শিশুর লাশ

অডিও শুনুন

নরসিংদীর রায়পুরায় পরিত্যক্ত এক ডোবা থেকে ইয়ামিন মিয়া (৮) নামে এক শিশুর গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামের এক ডোবা থেকে এই মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে ২৮ নভেম্বর থেকে ওই শিশু নিখোঁজ ছিলো। পুলিশের ভাষ্যমতে, শিশুটির মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছিলো দশ লাখ টাকা। ইয়ামিন মিয়া (৮) উত্তর বাখরনগর গ্রামের জামাল মিয়ার ছেলে। বাবা জামাল মিয়া প্রবাসে থাকায় শিশু মা শামসুন্নাহার বেগমের কাছে লালিতপালিত হচ্ছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২৮ নভেম্বর উত্তর বাখরনগর ইউপি নির্বাচনের দিন থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না শিশুটিকে। এর পরের দিন থেকেই ফোনে এবং বিভিন্ন সময়ে শিশুটির পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করছিলো দুর্বৃত্তরা।

বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মাধ্যমে মুক্তিপণের এই রকম মেসেজ পেয়ে তার পরিবার রায়পুরা থানা পুলিশের স্মরণাপন্ন হয় এবং গত ১ ডিসেম্বর থানায় অভিযোগ করে। এরপর থেকে পুলিশ কাজ শুরু করলেও তার কোনো খোঁজ মেলেনি। সবশেষ, শুক্রবার সকালে বাখনগর গ্রামের মোতালেব মিয়ার বাড়ির পেছনে এক ডোবা থেকে গলিত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রায়পুরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আতাউর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে আসছিল দুর্বৃত্তরা। নিখোঁজ ওই শিশুর মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছিলেন। অভিযোগপত্রে কারও নাম উল্লেখ না করলেও তিনি তিনজন ব্যক্তিকে সন্দেহ করেন বলে আমাদের জানান।

রাকিবুল ইসলাম/এমএসআর

Link copied