গাছে ঝুলছিল ছাত্রী, পরিবারের দাবি হত্যা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:২২ পিএম


গাছে ঝুলছিল ছাত্রী, পরিবারের দাবি হত্যা

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (০৫ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়নের আজাদনগর গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। 

ওই স্কুলছাত্রীর নাম লাকী খাতুন (১৪)। সে ওই গ্রামের শুকুর আলী মন্ডলের মেয়ে এবং বিপ্রবগদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। 

এদিকে ওই ছাত্রীর বাবা শুকুর আলী জানান, মেয়েকে হত্যা করে মরদেহ গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

প্রতিবেশী ওহিদুল ইসলাম জানান, রোববার সকাল ৬টার দিকে পেঁয়াজ ক্ষেত দেখতে যাই। এরপর দেখি আমগাছের সঙ্গে কী যেন ঝুলছে। কাছে গিয়ে দেখতে পাই মরদেহ। এরপর তার পরিবারকে খবর দেই।

লাকির মা ছালেহা খাতুন বলেন, আমার মেয়ের সঙ্গে একই গ্রামের সদু জোয়ার্দ্দারের ছেলে মারুফ জোয়ার্দ্দারের ঘনিষ্ট সম্পর্ক ছিল। রাত ৩টার দিকে মেয়েকে ঘরে না পেয়ে অনেক খোঁজাখুঁজি করি। সকাল ৬টার দিকে ওহিদুল ইসলাম এসে খবর দেয় তোমার মেয়ের মরদেহ গাছের সঙ্গে ঝুলছে। এরপর সেখানে গিয়ে আমার মেয়ের মরদেহ দেখতে পাই। তবে আমার বিশ্বাস আমার মেয়ের মৃত্যুর পেছনে মারুফের হাত রয়েছে।

মারুফ জোয়ার্দ্দার জানান, মেয়েটির সঙ্গে আমার চাচা-ভাতিজির সম্পর্ক ছিল। ওদের বাড়িতে যাতায়াতের সুবাদে জানাশোনা ছিল। তবে এই মৃত্যু বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

শৈলকুপা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আব্দুল্লাহ আল মামুন/এসপি

Link copied