প্রতীক পেয়ে পোস্টার আনতে গিয়ে গেলেন না-ফেরার দেশে

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৩৮ পিএম


প্রতীক পেয়ে পোস্টার আনতে গিয়ে গেলেন না-ফেরার দেশে

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নুরনগর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য প্রার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) বেলা একটার দিকে শ্যামনগর সদরে পোস্টার নেওয়ার সময় ছাপাখানায় হৃদরোগে আক্রান্ত হন এই প্রার্থী। তাৎক্ষণিক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

ইউপি সদস্য প্রার্থী জি এম নজরুল ইসলাম (৬০) নুরনগর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের চাউলিয়া গ্রামের মৃত মোলান্দী গাজীর ছেলে। চতুর্থ ধাপে আগামী ২৬ ডিসেম্বর ইউপি নির্বাচনের ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিলেন। এ ছাড়া তিনি এই ওয়ার্ডের আগেও ইউপি সদস্য ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনী তোড়জোড় শুরু হয়েছে। ২৬ ডিসেম্বর ইউনিয়নের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। নজরুল ইসলাম ফুটবল প্রতীক পেয়েছেন। বুধবার শ্যামনগর সদরে পোস্টার ছাপানোর জন্য গিয়েছিলেন। সেখানে জননী ছাপাখানায় পোস্টার নেওয়ার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। অতিরিক্ত চিন্তা করার কারণে তিনি মার যান বলে ধারণা করছেন সবাই।

জননী চাপাখানার স্বত্বাধিকারী কর্ণ চৌকিদার বলেন, সদস্য প্রার্থী নজরুল ইসলামের পোস্টার ছাপানো শেষ হয়েছে। পোস্টারগুলো নিতে এসেছিলেন। হঠাৎ চেয়ারের ওপর বসে বমি করতে থাকে। এ সময় দ্রুত একটি ভ্যানে করে পার্শ্ববর্তী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে পৌঁছালে চিকিৎসক বলেন, পথেই মারা গেছেন তিনি।

শ্যামনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) নির্বাচনের জন্য প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। নুরনগর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী নজরুল ইসলাম ফুটবল প্রতীক বরাদ্দ পেয়েছেন। জেনেছি, পোস্টারের জন্য উপজেলা সদরে এসেছিলেন। ছাপাখানায় হৃদরোগে মারা গেছেন।

আকরামুল ইসলাম/এনএ

Link copied