৭ বার হেরে অবশেষে চেয়ারম্যান হলেন আনু

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, দিনাজপুর

১২ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৩ পিএম


৭ বার হেরে অবশেষে চেয়ারম্যান হলেন আনু

অডিও শুনুন

‘পারিব না এ কথাটি বলিও না আর, একবার না পারিলে দেখ শতবার’ কবির এ কথা বিশ্বাস করে ৪০ বছর ধরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে অবশেষে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আনোয়ারুল আজিম (আনু) নামে এক ব্যক্তি। ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার ৯ নং কুশদহ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আনারস প্রতীকে জয়লাভ করেন তিনি।

জানা গেছে, আটবার নির্বাচনে অংশ নিয়ে ৭০ বছর বয়সে এই প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন তিনি।

 নবাবাগঞ্জ উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, এলাকায় আনু ভাইয়ের ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকার পরও একই পরিবারের একজন প্রভাবশালী প্রার্থী হওয়ায় তিনি জয়ী হতে পারেন না। বারবার অল্প ভোটের ব্যবধানের হেরে যেতেন। কিন্তু  গত ইউপি নির্বাচনে তিনি সামান্য ভোটে পরাজিত হয়েছিলেন। কিন্তু এবার এলাকার মানুষ ভোট দিয়ে তাকে জয়ী করেছেন।

আনোয়ারুল ইসলাম নামে একজন ঢাকা পোস্টকে বলেন, আনু ভাইকে ছোট থেকেই দেখি তিনি চেয়ারম্যান পদে প্রতিবারই নির্বাচন করেন আর হেরে যান। কিন্তু তিনি আশা ছাড়েননি। তিনি চেয়ারম্যান হতে না পারলেও ইউনিয়নের মানুষের পাশে থেকে যতটুক পারতেন সাহায্য সহযোগিতা করতেন। তিনি এবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এলাকার মানুষ অনেক খুশি। কারণ তিনি সাতবার হেরে আটবারে জয়ী হয়েছেন।

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. আনোয়ারুল আজিম (আনু) ঢাকা পোস্টকে বলেন, এলাকার মানুষের বিভিন্ন সমস্যায় পাশে থাকতে হয়, তাই চেয়ারম্যান হলে তাদের পাশে থাকা আরও সহজ হবে- এই প্রত্যাশা নিয়ে ১৯৮৩ সালে প্রথম ভোটার হয়েই ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হই। কিন্তু নিজের আত্মীয় প্রার্থী হওয়ায় আমি বারবার পরাজিত হই। আমার বিশ্বাস ছিল এলাকার মানুষের আমার প্রতি দয়া হবে। এভাবে পরপর আটবার প্রার্থী হই। অবশেষে জয়ী হলাম।

উল্লেখ্য, আনোয়ারুল আজিম আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রার্থীর চেয়ে ৬৩৫ ভোট বেশি পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। তিনি ভোট পেয়েছেন ৯ হাজার ৭৮৯টি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী আবু সাহাদাত মো. সায়েম আলী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন  ৯ হাজার ১৫৩টি ভোট।

ইমরান আলী সোহাগ/এসপি

Link copied