সাংবাদিকদের লক্ষ্য করে বোমা হামলা ও গুলির ঘটনায় মামলা

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, শরীয়তপুর

০৬ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:০৮ পিএম


সাংবাদিকদের লক্ষ্য করে বোমা হামলা ও গুলির ঘটনায় মামলা

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ভোজেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দুলুখণ্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সাংবাদিকদের অবরুদ্ধ করে গুলি, বোমা হামলা ও দুটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। চেয়ারম্যান প্রার্থী দোলোয়ার হোসেন ব্যাপারীসহ ১৫ ব্যক্তিকে আসামি করে মামলাটি করা হয়। পুলিশ এ ঘটনায় কবির চৌকিদার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সকালে নড়িয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন কালেরকণ্ঠের শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি শরীফুল আলম ইমন।  

মামলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী দোলোয়ার হোসেন ব্যাপারী, তার জামাতা বিল্লাল চৌকিদার, রতন ছৈয়াল, ভোজেশ্বর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যন নুরুল হক ব্যাপারীর ছেলে ইমরান ব্যাপারী, সবুজ ব্যাপারী, বিপ্লব ব্যাপারীসহ ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

নড়িয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, কেন্দ্রে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় প্রিসাইডিং কর্মকর্তা বাদী হয়ে দুটি মামলা করেছেন। আর সাংবাদিকদের ওপর হামলা ও মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় ১৫ জনকে আসামি করে আরেকটি মামলা করা হয়েছে। গতকাল রাতেই পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, ভোজেশ্বর ইউনিয়নের দুলুখণ্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে হামলা, ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও অগ্নিসংযোগের পর ভোট স্থগিত করা হয়। এই কেন্দ্রের ভোট গণনা ছাড়াই বেসরকারিভাবে শহীদুল হক সিকদারকে নির্বাচিত করা হয়েছে। 

সাংবাদিক শরীফুল আলম ইমন বলেন, আমরা সংবাদ কর্মীরাতো কারও প্রতিপক্ষ নই। তাহলে কেন পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় আমাদের জানমালের ওপর হামলা করা হবে? প্রশাসনের প্রতি আহ্বান দ্রুততম সময়ের মধ্যে সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হোক। 

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শহীদুল হক সিকদার বলেন, আমার বিজয় নিশ্চিত জেনে ভোটে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে কেন্দ্রে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করেছেন দেলোয়ার ব্যাপারী। তারা দীর্ঘদিন থেকেই এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে। পুলিশের কাছে অনুরোধ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের আইনের আওতায় আনুন। 

এদিকে সাংবাদিকদের অবরুদ্ধ করে গুলি, বোমা হামলা ও মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় নিন্দা ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে ছাত্র ইউনিয়ন, শরীয়তপুর প্রেসক্লাব, শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক্স জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, হিন্দু মহাজোটসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।

সৈয়দ মেহেদী হাসান/আরএআর

Link copied