মহেশখালীতে ২ হাজার নতুন পাঠ্যবই ভাঙারির দোকান থেকে জব্দ

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, কক্সবাজার

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:১৪ পিএম


মহেশখালীতে ২ হাজার নতুন পাঠ্যবই ভাঙারির দোকান থেকে জব্দ

কক্সবাজারের মহেশখালীতে একটি ভাঙারির দোকান থেকে ২০২২ সালের দুই হাজার সরকারি পাঠ্যবই জব্দ করেছে উপজেলা প্রশাসন। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজারের নেতৃত্বে উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের ফকিরাঘোনা গ্রামে যৌথ অভিযানে এ বইগুলো জব্দ করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাই।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি জানান, বড় মহেশখালী ফকিরাঘোনার মোহাম্মদ ছিদ্দিকের মালিকানাধীন একটি ভাঙারির দোকানে রুবেল নামের এক ব্যক্তি ২০২২ সালের প্রায় দুই হাজার পাঠ্যবই বিক্রির জন্য নিয়ে আসে। নতুন বই দেখে দোকানমালিকের সন্দেহ হয়। এরপর তিনি বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে জানায়। পরে কয়েকজন গ্রাম পুলিশ সদস্য ওই দোকানে গিয়ে বইগুলো তাদের জিম্মায় নেন।

গ্রাম পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ সোলাইমানসহ অন্যরা দুই হাজার কপি নতুন বই তাদের হেফাজতে রাখেন। এরপর তারা পুলিশকে খবর দেন। পরে সকালে অভিযান চালিয়ে বইগুলো উদ্ধার করে পুলিশ।

ওসি মো. আব্দুল হাই আরও জানান, সরকারি বই বিক্রি করে দেওয়া খুবই দুঃখজনক কাজ। তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Dhaka Post

এ বিষয়ে দোকানমালিক মোহাম্মদ ছিদ্দিক জানান, কুলালপাড়ার মো. মনজুরের ছেলে মোহাম্মদ রুবেল রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিক্রির জন্য বইগুলো নিয়ে আসেন। বইগুলো দোকানে রেখে এক পর্যায়ে সে সরে যায়। সন্দেহ হলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ সদস্যদের বিষয়টি জানান তিনি।

মহেশখালী উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. ফজলুল করিম জানান, ঘটনাটি শোনার সঙ্গে সঙ্গে বইয়ের গুদামসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে খোঁজ নিই। কোথাও থেকে বই চুরি হয়নি। তবে যে ব্যক্তি বিক্রির জন্য নিয়ে গেছে, তাকে বের করে ঘটনার সত্যতা উদঘাটন করতে হবে। পাশাপাশি জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

এনএ

Link copied