নির্বাচনী সহিংসতায় আহত, ২১ দিন পর মারা গেলেন কৃষক

Dhaka Post Desk

জেলা প্রতিনিধি, নেত্রকোনা

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৩৮ এএম


নির্বাচনী সহিংসতায় আহত, ২১ দিন পর মারা গেলেন কৃষক

নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলার দাউদপুর গ্রামে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত হওয়ার ২১ দিন পর শৈলেন ভৌমিক (৫৮) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। 

শৈলেন ভৌমিক ওই গ্রামের মৃত হরগোবিন্দ ভৌমিকের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পঞ্চম ধাপে ২৭ ডিসেম্বর খালিয়াজুরী উপজেলার ইউপিগুলোতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে চাকুয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে দাউদপুর গ্রামের অজিত মহলানবীশ জয়ী হন। পরাজিত হন একই গ্রামের যতীন্দ্র মহলানবীশ। নির্বাচনের পর দিন যতীন্দ্র ও অজিতের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে অজিতের সমর্থক শৈলেন ভৌমিক, বিপ্লব, অনিক ও অপুসহ কয়েকজন গুরুতর আহত হন। 

তাদের খালিয়াজুরী, জেলা সদর ও ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংঘর্ষে শৈলেন ভৌমিক চোখে এবং কপালে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন। চার দিন নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার পর তিনি বাড়ি ফিরে যান। বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। এ অবস্থায় সোমবার দুপুরে অবস্থার অবনতি হয়ে তিনি মারা যান। খবর পেয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে নেত্রকোনা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

খালিয়াজুরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের পর অজিত মহলানবীশ বাদী হয়ে ২৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। ময়নাতদন্তে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই মামলাটিই হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে। আজ সকালে নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হবে।

জিয়াউর রহমান/এসপি

Link copied