প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন!

Dhaka Post Desk

ঢাকা পোস্ট ডেস্ক

১০ জুন ২০২১, ১০:০৫


প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন!

করোনা মহামারির মধ্যেই অর্থনৈতিক অগ্রগতি হয়েছে ভারতের। বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য বলছে, বড় অর্থনীতির দেশ হিসেবে দ্রুত অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটির সামনে রয়েছে শুধু চীন।

বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ৮.৩ শতাংশ। চীনের সঙ্গে ব্যবধান মাত্র ০.২ শতাংশের। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বিশ্ব ব্যাংকের করা সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য হিসাব ছিল ৫.৪ শতাংশ, যা বর্তমান হিসাবের চেয়ে ২.৯ শতাংশ কম। যদিও চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিশ্ব ব্যাংক যে সমীক্ষা দিয়েছিল, তাতে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ছিল ১০.১ শতাংশ, যা বর্তমান সমীক্ষার চেয়ে প্রায় ১.৭ শতাংশ বেশি। সব মিলিয়ে করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে ভারত চালকের আসনে থাকবে- এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

বিশ্ব ব্যাংক ভারতের করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতির ভূয়সী প্রশংসা করেছে। তাদের মতে, ভারতের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য কারণ হিসেবে উন্নত পরিকাঠামোয় বিনিয়োগ, সঠিক পরিকল্পনা, গ্রামীণ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য পরিষেবায় উন্নতি- এই চারটি বিষয়কে বিবেচনায় নেওয়া যেতে পারে। ভারতের পাশাপাশি দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ভুটান এবং বাংলাদেশেরও। দুই দেশেরই সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশ। তবে বেহাল দশা পাকিস্তানের। তাদের সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি মাত্র ২ শতাংশ।

দক্ষিণ এশিয়া ও বিশ্বের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়েও পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। তারা বলছে, করোনা পরবর্তীতে বিশ্বকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে আরও ৮০ বছর লাগবে। এই অর্থবছরে সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি ৫.৬ শতাংশ। তবে এই সংখ্যায় খানিক ধাক্কা লাগতে চলেছে আগামী অর্থবছরে। আগামী অর্থবছরে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৪.৩ শতাংশ। ২০২৩ সালে সার্বিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ৩.১ শতাংশ। দক্ষিণ এশিয়ার ক্ষেত্রে এই বৃদ্ধির পরিমাণ চলতি অর্থবছরে ৬.৮ শতাংশ।

দীর্ঘদিন পর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ভারতের এতটা এগিয়ে থাকা জনমানুষের মধ্যে খানিক আশার আলো আনবে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

এসএসএইচ

Link copied