তৈরি পোশাক সর্বাধিক রফতানি যুক্তরাষ্ট্রে, প্রবৃদ্ধি ৪৬ শতাংশ

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১৫ জানুয়ারি ২০২২, ০২:২৮ পিএম


তৈরি পোশাক সর্বাধিক রফতানি যুক্তরাষ্ট্রে, প্রবৃদ্ধি ৪৬ শতাংশ

সদ্য বিদায়ী বছরের শেষ ছয় মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রফতানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ৪৬ শতাংশ। পাশাপাশি ইউরোপ ও কানাডার বাজারে ২৪ শতাংশ রফতানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে। এছাড়াও নন-ট্রেডিশনাল মার্কেটে রফতানি প্রবৃদ্ধি বেড়ে হয়েছে ২৪ দশমিক ২৬ শতাংশ। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) সারাবিশ্বে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রফতানি হয়েছে ১ হাজার ৯৯০ কোটি ৭ লাখ ডলারের, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ হাজার ৫৫৪ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার ডলার। সেই হিসাবে ছয় মাসে রফতানি প্রবৃদ্ধি বেড়েছে ২৮ শতাংশ।

জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পোশাক রফতানি হয়েছে ৪২৩ কোটি ১৬ লাখ ৫ হাজার ডলারের, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২৯০ কোটি ৮ হাজার ডলার। অর্থাৎ প্রবৃদ্ধি বেড়ে হয়েছে ৪৫ দশমিক ৯১ শতাংশ।

ওভেন খাতে যুক্তরাষ্ট্রে রফতানি হয়েছে ২৬৮ কোটি ২১ লাখ ৭ হাজার ডলারের পোশাক, যা আগের বছর ছিল ১৯১ কোটি ৬১ লাখ ৯ হাজার ডলার। অর্থাৎ ওভেন খাতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩০ দশমিক ৬৯ শতাংশ। নিটওয়্যার খাতে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে রফতানি হয়েছে ১৫৪ কোটি ৬০ লাখ ৭ হাজার ডলারের পোশাক, যা আগের বছর ছিল ৯৮ কোটি ৩৮ লাখ ৯ হাজার ডলার।

যুক্তরাষ্ট্রের পর ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ১ হাজার ২০০ কোটি ৭১ লাখ ১ হাজার ডলারের পোশাক রফতানি হয়েছে, যা এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৯৬৯ কোটি ৬৫ লাখ ২ ডলার। অর্থাৎ ৮৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

কানাডার বাজারে ছয় মাসে পোশাক রফতানি হয়েছে ৬০ কোটি ২৮ লাখ ২ হাজার ডলারের, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৪৮কোটি ৭০ লাখ ২ হাজার ডলার। অর্থাৎ ২৩ দশমিক ৭৮ শতাংশ বেড়েছে।

২০২১ সালের প্রথম ছয় মাসে নন-ট্রেডিং মার্কেটে বাংলাদেশের পণ্য রফতানি হয়েছে ৩০৫ কোটি ৯১ লাখ ২ হাজার ডলারের, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২৪৬ কোটি ১৯ লাখ ৪ হাজার ডলার। অর্থাৎ আগের বছরের চেয়ে প্রবৃদ্ধি বেড়েছে ২৪ দশমিক ২৬ শতাংশ।

সার্বিক বিষয়ে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল ঢাকা পোস্টকে বলেন, ডাটা অনুযায়ী প্রধান বাজারগুলোতে বাংলাদেশের পোশাক রফতানির ঘুরে দাঁড়ানোর চিত্র ফুটে উঠেছে। এটা হয়েছে করোনার সময়ে পোশাক কারখানা খোলা রাখার সিদ্ধান্তের ফলে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান বাজার যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রফতানি প্রায় ৪৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ইউরোপ ও কানাডার বাজারে রফতানি প্রবৃদ্ধি যথাক্রমে ২৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ ও ২৩ দশমিক ৭৮ শতাংশ। স্পেন, পোল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, জার্মানি এবং ফ্রান্সসহ ইউরোপের প্রায় সব দেশে রফতানি উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে।

এ সময়ে অপ্রচলিত বাজারেও রফতানি বেড়েছে ২৪ দশমিক ২৬ শতাংশ। সামগ্রিকভাবে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথমার্ধে পোশাকের মোট রফতানি ২৮ শতাংশ বেড়ে ১৯ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

এমআই/আরএইচ

Link copied