এক মাসে কার্ডে লেনদেন কমেছে ৭৮৫০ কোটি টাকা

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১০ আগস্ট ২০২২, ০২:২৪ পিএম


এক মাসে কার্ডে লেনদেন কমেছে ৭৮৫০ কোটি টাকা

এক মাসের ব্যবধানে কার্ডের লেনদেন ৭ হাজার ৮৫০ কোটি টাকা কমে গেছে। চলতি বছরের মে মাসে ডেবিট, ক্রেডিট ও প্রি-পেইড কার্ডের মাধ্যমে গ্রাহকরা মোট লেনদেন করেছেন ২৮ হাজার ৭৬৪ কোটি টাকা, যা এপ্রিল মাসে ছিল ৩৬ হাজার ৬১৩ কোটি টাকা। লেনদেন কমলেও মে মাসে কার্ডের মাধ্যমে বেশি ডলার খরচ করেছেন ব্যাংকের কার্ডধারীরা। এটিএম, সিআরএম, পয়েন্ট অব সেলস ও ই-কমার্স কেনাকাটায় এসব লেনদেন হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, কার্ডভিত্তিক লেনদেন বাড়াতে ব্যাংকগুলো বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়ে আসছে। গেল বছর করোনার এ সময় ব্যাংকের অনেক শাখার লেনদেন সীমিত ছিল। ফলে ওই সময় গ্রাহকদের টাকা উত্তোলনের সুবিধার্থে এটিএম বা সিআরএমের ওপর জোর দেওয়া হয়। ওই সময় এটিএম বুথ থেকে দিনে একজনের টাকা উত্তোলনের সর্বোচ্চ সীমা বাড়িয়ে এক লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত মে পর্যন্ত ব্যাংকগুলোর ইস্যু করা মোট কার্ডের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৭ লাখ ৫০ হাজার। এর মধ্যে ডেবিট কার্ড ২ কোটি ৭১ লাখ ৬৯ হাজার। ক্রেডিট কার্ড ১৯ লাখ ৪১ হাজার এবং প্রিপেইড কার্ড রয়েছে ১৬ লাখ ৩৯ হাজার। সংখ্যার মতো কার্ড লেনদেনের সিংহভাগই হয় ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে।

গেল মে মাসে ডেবিট কার্ডে ২৬ হাজার ৫০ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের মাস এপ্রিলে ছিল ৩৩ হাজার ৩১৭ কোটি টাকা।  মে মাসে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ২ হাজার ৩৭১ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের মাস এপ্রিলে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৭১৫ কোটি টাকা। আর প্রি-পেইড কার্ডে মে-তে লেনদেন হয় ১৭৭ কোটি টাকা, যা এপ্রিলে ছিল প্রায় ৩১০ কোটি টাকা।

কার্ডে সার্বিক লেনদেন কমলেও বৈদেশিক মুদ্রার ব্যবহার বেড়েছে। আবার ডলারের দাম বাড়ার কারণেও খরচ বেড়ে গেছে। এ বছর মে মাসে ৩৫৬ কোটি টাকার সমপরিমাণ মার্কিন ডলার খরচ করেছেন কার্ডের গ্রাহকেরা। যা তার আগের মাস এপ্রিলে ছিল ২৪১ কোটি টাকা।

এসআই/জেডএস

Link copied