ক্রেতা সংকটে ফের বড় দরপতন পুঁজিবাজারে

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১০ আগস্ট ২০২২, ০৪:৫২ পিএম


ক্রেতা সংকটে ফের বড় দরপতন পুঁজিবাজারে

জ্বালানির দাম বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে পুঁজিবাজারে আবারও ক্রেতার সংকট তৈরি হয়েছে। এতে শেয়ার কেনার চেয়ে বিনিয়োগকারীদের বিক্রির চাপ বেড়েছে। শেয়ার বিক্রির চাপে আজও পুঁজিবাজারে বড় দরপতন হয়েছে। এদিন লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম, সূচক ও লেনদেন কমেছে।

দিনভর সূচক পতনে বুধবার (১০ আগস্ট) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক কমেছে ৭৮ পয়েন্ট। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক কমেছে ২০৬ পয়েন্ট। এর ফলে আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহ উত্থানের পর দ্বিতীয় সপ্তাহের তিন কর্মদিবসের মধ্যে তিনদিনই পুঁজিবাজারে দরপতন হলো। তার আগের টানা দুই মাস পুঁজিবাজারে দরপতন হয়েছিল।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বুধবার লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৪৩টি ছিল ক্রেতাশূন্য। পাশাপাশি লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় অর্ধশতাধিক কোম্পানির শেয়ার ফ্লোর প্রাইসে আটকে গেছে। আর তাতে এসব কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচাও কমেছে। সূচক পতনের পাশাপাশি লেনদেন হাজার কোটি টাকা থেকে কমে ৭০০ কোটি টাকার গড়ে নেমে এসেছে।

এদিকে বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ভয় ঢুকেছে গেছে। পাশাপাশি ডলারের বাজার প্রতিনিয়তই অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। এ কারণে ভয়ে শেয়ার বিক্রি করে টাকা উঠিয়ে নিচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। তাতে পুঁজিবাজার বড় দরপতন হয়েছে। 

ডিএসইর তথ্য মতে, বুধবার ডিএসইতে ২৩ কোটি ১৩ লাখ ৫৩ হাজার ৮৪৭টি শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। যার মূল্য ৭৯৯ কোটি ৪৮ লাখ ৩৭ হাজার টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৮৩ কোটি ৪৬ লাখ ৭ হাজার টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন পৌনে তিনশ কোটি টাকা কমেছে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৭৯টি কোম্পানির শেয়ারের। এর মধ্যে ২৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ২৭৯টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৭৪টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৮ পয়েন্ট কমে ৬ হাজার ১৮০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। ডিএসইএস সূচক ১৩ দশমিক ৮১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৩৫৪ পয়েন্টে এবং ডিএস-৩০ সূচক ২৬ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ২১০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিন লেনদেনে শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার। এরপর রয়েছে সোনালী পেপার, সি পার্ল বিচ, মালেক স্পিনিং, ইন্ট্রাকো , কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ, অলিম্পিক, লাফার্জহোলসিম, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং ওরিয়ন ইনফিউশন লিমিটেড।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০৫ পয়েন্ট কমে ১৮ হাজার ২৩২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এ বাজারে ২৬৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৩২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৮৯টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

এদিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ১৬ লাখ ৬৮ হাজার ১৩১ টাকার শেয়ার। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৮ কোটি ৩৭ লাখ ৮ হাজার ৮৫১ টাকার শেয়ার।

এমআই/এসএম

Link copied