বিধিনিষেধে ঊর্ধ্বমুখী পুঁজিবাজার

Dhaka Post Desk

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

১৫ এপ্রিল ২০২১, ১১:০৩

বিধিনিষেধে ঊর্ধ্বমুখী পুঁজিবাজার

ডিএসই টাওয়ার

সব শঙ্কা ও গুজবের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু হয়েছে। করোনার প্রকোপ রোধে সরকার ঘোষিত দ্বিতীয় দফা বিধিনিষেধের মধ্যে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকাল ১০টায় লেনদেন শুরু হয়েছে।

লেনদেনের প্রথম ১০ মিনিটে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ২৩ পয়েন্ট। বিমা, মিউচুয়াল ফান্ড ও ওষুধ খাতের শেয়ারের দাম বৃদ্ধির মধ্যদিয়ে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে। 

এ সময়ে অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ২০ পয়েন্ট। সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দামও।

ডিএসইর তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার লেনদেনের প্রথম ১০ মিনিটে ডিএসইর প্রধান সূচক ২৩ পয়েন্ট বেড়ে পাঁচ হাজার ২৮১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ১১ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক বেড়েছে ৬ পয়েন্ট। ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৪৪ কোটি ৮ লাখ টাকার শেয়ার।

লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর শেয়ারের মধ্যে দাম বেড়েছে ১২১টির, কমেছে ৪৭টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক ২০ পয়েন্ট বেড়ে ১৫ হাজার ২১৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হয়েছে ৫০ কোটি ৮৩ লাখ টাকার শেয়ার। লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর শেয়ারের মধ্যে দাম বেড়েছে ১১টির, কমেছে ৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১টির।

করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধে প্রথমে পুঁজিবাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে আবার চালু রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়। 

কিন্তু এই সময়ে অফিসে যাতায়াতের জন্য প্রয়োজন হবে মুভমেন্ট পাসের। এজন্য পুঁজিবাজারের সঙ্গে জড়িত সব প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের যাতায়াত সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধের আওতামুক্ত রাখতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) কমিশনের যুগ্ম পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ হোসেন খান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে বলা হয়, করোনার প্রকোপ রোধে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধের মধ্যেও ১৫ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু থাকবে। বিএসইসি বিনিয়োগকারীদের আস্থা রক্ষার স্বার্থে লেনদেন ও নগদ অর্থ উত্তোলনের জন্য ব্যাংক ব্যবস্থার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পুঁজিবাজারে লেনদেন চালু রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এ সময়ে সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটির দিন বাদে ব্যাংক খোলা থাকার কারণে বিএসইসি ও পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠান সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। বিএসইসি ও পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের অফিসে যাতায়াত আরোপিত বিধিনিষেধের আওতামুক্ত রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

এমআই/এসএসএইচ/জেএস

Link copied